মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ০২:৫৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
স্বামী পুরুষাঙ্গ কেটে দিল স্ত্রী, ঘাতক স্ত্রী আটক কোহলির আরও একটি রেকর্ড ভাঙ্গলেন বাবর যুক্তরাষ্ট্রের গ্রিন কার্ড পেলেন শাকিব খান বন্যাদুর্গত এলাকায় কাটা রাস্তায় সেতু বা কালভার্ট নির্মাণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর হজ পালনের জন্য সৌদি পৌঁছেছেন ৪২ হাজার হজযাত্রী মহাসড়কে শতাধিক পরিবারের বসবাস, রাত কাটছে ভয়-আতঙ্কে সিলেটে সরকারি উদ্যোগে আড়াই কোটি টাকার ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ সিলেটে বন্যাকবলিত এলাকায় শিক্ষা নিয়ে আশঙ্কা সিলেটে ভয়াবহ বন্যার বড় কারণ হাওর দখল: গবেষণা সুনামগঞ্জে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৫০০ কোটি টাকার সড়ক-সেতু যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসে ট্রাকের মধ্যে ৪৬ জনের মরদেহ উদ্ধার ত্রাণের কোন সংকট নেই, প্রচুর ত্রাণসামগ্রী স্থানীয় প্রশাসনের হাতে রয়েছে: হানিফ সিলেটে পানি কমছে ধীর গতিতে বানভাসীদের চরম দুর্ভোগ প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিলে অনুদান প্রদান করলো এনআরবি ব্যাংক ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রীর কন্যাকে কটূক্তি, যুবক গ্রেফতার




৩৮ বছর ধরে বিনা পারিশ্রমিকে কুরআন শেখাচ্ছেন হাফেজ আ. হান্নান

FB IMG 1655271722980 - BD Sylhet News




 

শিশু ও কিশোর-কিশোরীদের পবিত্র কুরআন শিক্ষা দেওয়াই তার পেশা। এজন্য তিনি অবশ্য কোনো পারিশ্রমিক নেন না। গত তিন যুগের বেশি সময় ধরে মহৎ এ কাজটি করে চলেছেন কুষ্টিয়ার মিরপুরের হাফেজ আব্দুল হান্নান।

কুরআন শিক্ষা কার্যক্রমকে বেগবান করতে মিরপুর পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের সুলতানপুর গ্রামে নিজের টাকায় গড়ে তুলেছেন একটি মক্তব। প্রভাতের আলো ফুটে উঠতেই প্রতিদিন গ্রামের ছেলে-মেয়েরা কুরআন শিখতে আসে তার কাছে।

এছাড়া স্থানীয় একটি কবরস্থানের বাইরে মাদুর পেতে কুরআন শিক্ষা দেন হাফেজ আব্দুল হান্নান।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৯৮৪ সালে প্রথম বাড়ির উঠানে গ্রামের ছেলে-মেয়েদের কুরআন শেখানো শুরু করেন হাফেজ আব্দুল হান্নান। এরপর ব্যাপক হারে শিক্ষার্থী বেড়ে যাওয়ায় ১৯৮৬ সালে বাড়ির পাশে একটি মাটির ঘর তৈরি করে সেখানে কুরআন শিক্ষা অব্যাহত রাখেন।

পরে ১৯৯৫ সালে তার বাবা আব্দুল আজিজ শেখ তাকে এক কাঠা জমি দিলে সেখানে একটি ঘর নির্মাণ করে মক্তব চালু করেন।

স্থানীয় সাংবাদিক মো. কুদরতে খোদা সবুজ বলেন, হাফেজ আব্দুল হান্নান তিন যুগের বেশি সময় ধরে মানুষকে কুরআন শেখাচ্ছেন। এজন্য তিনি কোনো টাকাপয়সা নেন না। এছাড়া নিজের ও আশপাশের গ্রামের কোনো পুরুষ মানুষ মারা গেলে তার দাফন-কাফন ও জানাজা পড়ান তিনি।

হাফেজ আব্দুল হান্নান জানান, এ পর্যন্ত নিজের গ্রাম ছাড়াও আশপাশের এলাকার প্রায় ১০ হাজার ছেলে-মেয়েকে বিনা পারিশ্রমিকে কুরআন শিক্ষা দিয়েছেন।

তিনি আরও জানান, তার মক্তবে বিভিন্ন বয়সের মানুষ কুরআন শিখেন। তাছাড়া যেসব শিক্ষার্থীর কেনার সামর্থ্য নেই তাদের বিনামূল্যে কুরআন শরিফ দেন।

হাফেজ আব্দুল হান্নান বলেন, রাসুলুল্লাহ (সা.) বলেছেন, ‘তোমাদের মধ্যে সেই শ্রেষ্ঠ যে কুরআন শেখে এবং অন্যকে শেখায়।’ হাফেজ হওয়ার সময় এ হাদিস শোনার পর থেকে সিদ্ধান্ত নিই- মানুষকে বিনা খরচে কুরআন শেখাব। এরপর থেকে মানুষকে কুরআন শিক্ষা দিয়ে যাচ্ছি। যতদিন বেঁচে থাকব, ততদিন মহান এ কাজ করে যাব- ইনশাআল্লাহ।

নিজের আয় সম্পর্কে তিনি জানান, স্থানীয় একটি মসজিদে ইমামতি করে বছরে কিছু ধান পান। এছাড়া নিজের দুই বিঘা জমিতে চাষাবাদ করে তার সংসার চলে।

বিডি সিলেট ডেস্ক/ সূত্র-যুগান্তর/

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD