সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৫:০৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
আসছে বর্ষা, সিলেটে ঝুঁকি নিয়ে টিলায় বসবাস শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে সিলেট জেলা আ.লীগের কর্মসূচী ঘোষণা জগন্নাথপুরে ৩ দিন ধরে ফেরি চলাচল বন্ধ, চরম দুর্ভোগে যাত্রীরা জাপানি দুই শিশু: বাবার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন সিলেটে একদিনে সড়ক দূর্ঘটনায় ৪ জন নিহত আইসিইউতে ভর্তি বিএনপি নেতা মঈন খান পুকুরে টাকা ডুবলেই ‘স্বপ্ন পূরণ পানির নিচে খাদেমের কারসাজি’ সিলেট নগরীতে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু সিলেটে কুড়িয়ে পাওয়া শিশু উর্মির অভিভাবকের সন্ধান চায় পুলিশ বিশ্বকাপ ট্রফি ৫১ দেশের উদ্দেশে যাত্রা শুরু ‘এখানে কিছু টাকা আছে, এটা দিয়ে আমার দাফন-কাফন করিও’ সিলেটে পাহাড়ি ঢলে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, দুর্ভোগে মানুষ সিলেটে গাঁজাসহ মাদক কারবারি আটক বড়লেখায় বর্হিবিশ্ব জাতীয়তাবাদী ফাউন্ডেশন নেতৃবৃন্দদের সংবর্ধনা প্রদান হবিগঞ্জে ভারতীয় চাপাতাসহ চোরাকারবারি আটক




হবিগঞ্জে পানিতে তলিয়ে গেছে ১০০ হেক্টর জমির আধাপাকা ধান

1650298241.paddy - BD Sylhet News




হবিগঞ্জ প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলায় নতুন করে আরও দুটি হাওরের প্রায় একশ’ হেক্টর বোরো ধানের জমি পানিতে তলিয়ে গেছে। এ নিয়ে তিন দিনে তলিয়ে গেছে পাঁচ হাওরের দুই শতাধিক হেক্টর বোরো জমির আধাপাকা ধান।

সোমবার (১৮ এপ্রিল) উপজেলার এক নম্বর লাখাই ইউনিয়নের কৃষ্ণপুর ও সন্তোষপুরে পানি প্রবেশ করে।

এর আগে গত দুই দিনে ইউনিয়নটির শিবপুর, সুজনপুর ও বারচর হাওরের শতাধিক হেক্টর জমির আধাপাকা ধান পানির নিচে তলিয়ে যায়।

উপজেলা কৃষি বিভাগ জানিয়েছে, গত শনি ও রবিবার কালনী এবং মেঘনা নদীতে আসা জোয়ারের পানিতে লাখাই ইউনিয়নের শিবপুর, সুজনপুর ও বারচর হাওরের প্রায় ৭৫ হেক্টর জমি তলিয়ে যায়। সোমবার কৃষ্ণপুর ও সন্তোষপুরের হাওরে নতুন করে আরও শতাধিক হেক্টর জমির ধান পানিতে ডুবে গেছে। জমির ধান আধাপাকা হওয়ায় কৃষকরা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। তারা ধান পেকে যাওয়ার আগেই কেটে ঘরে তোলা শুরু করেছেন।

এক নম্বর লাখাই ইউনিয়নে অবস্থিত মেঘনা ও কালনী নদী সরাসরি হাওরের সঙ্গে যুক্ত। ফসল রক্ষা বাঁধ না থাকায় নদীর পানি হাওরে ঢুকছে। এতে ইউনিয়নটির শিবপুর, সুজনপুর ও বারচর হাওরের শতাধিক হেক্টর জমির আধাপাকা ধান পানির নিচে তলিয়ে গেছে।

লাখাইয়ে কর্মরত উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা অমিত ভট্টাচার্য্য বলেন, আর যদি পাহাড়ি ঢল না নামে তাহলে জমিগুলো রক্ষা পাবে। কিন্তু এভাবে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে হাওরগুলো ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সরকারি সহযোগিতার জন্য ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের তালিকা প্রণয়ন শুরু করেছে বলেও তিনি জানান।

লাখাইয়ে এ বছর বোরো ধানের আবাদ হয়েছে ১১ হাজার ২০০ হেক্টর জমিতে। এর মধ্যে শুধু লাখাই ইউনিয়নে হয়েছে ৩ হাজার ৪০০ হেক্টরে। কিছু জমিতে ব্রি-২৮ জাতের ধান প্রায় ৬০ শতাংশ পেকেছে। তবে বেশির ভাগ জমির ধান অর্ধেকও পাকেনি।

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD