শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ১০:২৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
সৌদিতে হজে গিয়ে এখন পর্যন্ত ৬৪ বাংলাদেশির মৃত্যু ৩৫ বছর একটানা মসজিদের ইমামতি শেষে রাজকীয় বিদায় শাশুড়িকে বাঁ-চা-তে গিয়ে প্রা’ণ গেল বউয়ের ৪ জনের উমরা হজ্বসহ শতাধিক কৃতী শিক্ষার্থীকে পুরস্কৃত করলো বরুণা মাদরাসা তপোবন যুব ফোরামের উদ্যোগে দুই রেমিট্যান্স যোদ্ধাকে সংবর্ধনা সুনামগঞ্জে সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার ওপরে, বেড়েছে ভোগান্তি কোটা সংস্কারের নামে বিএনপি জামায়াতের সন্তানেরা মাঠে নেমেছে : নিখিল সিলেটে ‘বুঙ্গার-চিনি-কান্ডে’ পুলিশের হাতে আটক ৫ জনের পরিচয় জানা গেল বাংলাদেশে বিনিয়োগ থেকে সরে দাঁড়ালো কোকাকোলা! অনন্ত-রাধিকার বিয়ের অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক ধোনি সিলেটে ‘বুঙ্গার চিনি’ কিনে আলোচনায় দুই ছাত্রলীগ নেতা মাত্র সাত মাসে কোরআনে হাফেজ হলেন ফাহিম আবারো সিলেটে বড় চালান ভারতীয় চোরাই ‘চিনি’ জব্দ শেষ মুহূর্তে অসাধারণ গোলে ফাইনালে ইংল্যান্ড চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী




ভারি বর্ষণে সিলেটে পাহাড় ধসের সতর্কবার্তা

789987879987222112.jpg64d268b383711 copy - BD Sylhet News




বিডিসিলেট ডেস্ক : ভারি বর্ষণ অব্যাহত থাকায় চট্টগ্রাম ও সিলেটের পাহাড়ি এলাকায় পাহাড় ধসের সতর্কবার্তা দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

টানা বৃষ্টিতে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড় ধসে ১০ জনের মৃত্যুর খবরের মধ্যেই এ সতর্কবার্তা এল।

অন্যদিকে উপকূলীয় এলাকায় ঝড়ো হাওয়ার কারণে দেশের সমুদ্রবন্দরগুলোকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ভারি বর্ষণ অব্যাহত রয়েছে।

বুধবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় নেত্রকোণায় দেশের সর্বোচ্চ ১৯৯ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এছাড়া সিলেটে ১০০ মিলিমিটার, মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ১৩৬ মিলিমিটার, হবিগঞ্জে ১৮৮ মিলিমিটার ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ১৫৪ বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম বলেন, “সক্রিয় মৌসুমি বায়ুর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর এলাকায় গভীর সঞ্চালনশীল মেঘমালা সৃষ্টি হচ্ছে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর, উপকূলীয় এলাকা ও সমুদ্রবন্দরের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে।”

এ কারণে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, পায়রা ও মোংলা সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

এছাড়া মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারকে উপকূলের কাছাকাছি থেকে সাবধানে চলাচল করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

পাশাপাশি রংপুর, ময়নসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেটে আগামী দুই দিন ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণের সতর্কতা দেওয়া হয়েছে।

ভারি বর্ষণের কারণে চট্টগ্রাম ও চট্টগ্রাম বিভাগের পাহাড়ি এলাকায় কোথাও কোথাও ভূমিধসের শঙ্কা রয়েছে বলে জানান আবহাওয়াবিদ শাহীনুল।

কক্সবাজারে মঙ্গলবার রাত থেকেই বৃষ্টি হচ্ছে। এর মধ্যেই গভীর রাত থেকে সকালের মধ্যে উখিয়ার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাঁচ জায়গায় পাহাড় ধসে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সাথে রংপুর, ময়মনসিংহ, সিলেট ও চট্টগ্রাম বিভাগের কোথাও কোথাও ভারি থেকে অতি ভারি বর্ষণ হতে পারে।

টানা বর্ষণ আর উজানের ঢলে দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলে চলছে বন্য। সুরমা ছাড়া দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সব প্রধান নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানিয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় নেত্রকোণা জেলার নিম্নাঞ্চল এবং সিলেট, সুনামগঞ্জ জেলায় চলমান বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা অবনতি হতে পারে। মৌলভীবাজার ও হবিগঞ্জ জেলার মনু-খোয়াই নদী সংলগ্ন নিম্নাঞ্চলের চলমান বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকতে পারে।

এছাড়া দেশের উত্তরাঞ্চলের দুধকুমার, তিস্তা ও ধরলা নদীর পানি সমতল আগামী ২৪ থেকে ৪৮ ঘণ্টায় বৃদ্ধি পেতে পারে এবং কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, রংপুর জেলার নিচু এলাকায় বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে।

এর ঠিক উল্টো পরিস্থিতি বিরাজ করছে দেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলের পাঁচ জেলায়। মাদারীপুর, পাবনা, খুলনা, যশোর ও চুয়াডাঙ্গা জেলার ওপর দিকে বুধবারও বয়ে যাচ্ছে মৃদু তাপপ্রবাহ।

পাবনা, যশোর ও চুয়াডাঙ্গায় দেশের সর্বোচ্চ ৩৬.৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় মঙ্গলবার। বৃষ্টির প্রবণতা বাড়লে ধীরে ধীরে এ তাপপ্রবাহ প্রশমিত হতে পারে বলে আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২৪
Design & Developed BY Cloud Service BD