শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪, ০৯:১১ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
সৌদিতে হজে গিয়ে এখন পর্যন্ত ৬৪ বাংলাদেশির মৃত্যু ৩৫ বছর একটানা মসজিদের ইমামতি শেষে রাজকীয় বিদায় শাশুড়িকে বাঁ-চা-তে গিয়ে প্রা’ণ গেল বউয়ের ৪ জনের উমরা হজ্বসহ শতাধিক কৃতী শিক্ষার্থীকে পুরস্কৃত করলো বরুণা মাদরাসা তপোবন যুব ফোরামের উদ্যোগে দুই রেমিট্যান্স যোদ্ধাকে সংবর্ধনা সুনামগঞ্জে সুরমা নদীর পানি বিপৎসীমার ওপরে, বেড়েছে ভোগান্তি কোটা সংস্কারের নামে বিএনপি জামায়াতের সন্তানেরা মাঠে নেমেছে : নিখিল সিলেটে ‘বুঙ্গার-চিনি-কান্ডে’ পুলিশের হাতে আটক ৫ জনের পরিচয় জানা গেল বাংলাদেশে বিনিয়োগ থেকে সরে দাঁড়ালো কোকাকোলা! অনন্ত-রাধিকার বিয়ের অনুষ্ঠানে সস্ত্রীক ধোনি সিলেটে ‘বুঙ্গার চিনি’ কিনে আলোচনায় দুই ছাত্রলীগ নেতা মাত্র সাত মাসে কোরআনে হাফেজ হলেন ফাহিম আবারো সিলেটে বড় চালান ভারতীয় চোরাই ‘চিনি’ জব্দ শেষ মুহূর্তে অসাধারণ গোলে ফাইনালে ইংল্যান্ড চীন সফর শেষে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী




অনলাইন জুয়ায় অর্ধকোটি টাকা পাচার, গ্রেফতার ৪

Untitled 1 samakal 6537abe13c86d - BD Sylhet News




বিডিসিলেট ডেস্ক : ক্রিকেট বিশ্বকাপে অনলাইন জুয়ায় প্রায় অর্ধকোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়া চক্রের মুলহোতাসহ ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব। সোমবার রাজধানীর মালিবাগ ও গাজীপুরের শ্রীপুর থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। তারা হলেন– মুলহোতা শ্রীপুরের বাসিন্দা নিশাত মুন্না (২০), রাজধানীর কমদতলীর কামরুল ইসলাম শুভ (২৭), মালিবাগের মো. সুমন (৩৫) ও নোয়াখালীর নাজমুল হোসেন বাবু (৩১)।

মঙ্গলবার কারওয়ান বাজারে র‍্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাবের আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, সোমবার রাতে র‍্যাব সদরদপ্তর গোয়েন্দা শাখা ও র‍্যাব-১ ও র‍্যাব-১১ এর যৌথ অভিযানে গাজীপুরের শ্রীপুর ও রাজধানীর মালিবাগ থেকে ৪ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। তারা জুয়ার সাইট চালিয়ে প্রায় অর্ধ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

তিনি বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেপ্তাররা জানিয়েছেন, দেড় বছর ধরে চক্রটি বিভিন্ন অনলাইন জুয়ার সাইটের বাংলাদেশে কার্যক্রম পরিচালনার সঙ্গে জড়িত। এর অন্যতম মুলহোতা গ্রেপ্তার হওয়া নিশাত মুন্না। তিনি বিদেশ থেকে পরিচালিত বিভিন্ন অনলাইন জুয়ার সাইটের মাধ্যমে বাংলাদেশে কার্যক্রম চালাতেন। তার ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুক আইডি রয়েছে। তার নেতৃত্বে চক্রটির ৭-৮ জন সদস্য দেশের বিভিন্ন এলাকায় অনলাইন জুয়ার সাইটের প্রচার, একাউন্ট খোলা, মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে অর্থ লেনদেন, হুন্ডির মাধ্যমে পার্শ্ববর্তী দেশে অর্থ পাঠানোর সঙ্গে জড়িত ছিল।

খন্দকার আল মঈন বলেন, মুলত ফুটবল বিশ্বকাপ, ক্রিকেট বিশ্বকাপ, আইপিএল, বিপিএল, বিভিন্ন ফুটবল লীগ-টুর্নামেন্ট ও অন্যান্য খেলাকে কেন্দ্র করে দেশেরে উঠতি বয়সের ছেলেদের টার্গেট করে এই অনলাইন জুয়ার প্রচার করত চক্রটি। বিজ্ঞাপন দেখে আগ্রহী ব্যক্তিরা যোগাযোগ করত চক্রের সদস্যদের সঙ্গে। প্রথমে একাউন্ট খুলে দেওয়া হতো। এরপর তাদের কাছ থেকে অনলাইন জুয়ার অর্থ সংগ্রহ করত চক্রের সদস্যরা। এরপর ওই অর্থ থেকে নিজেদের লভ্যাংশ রেখে বাকিটা মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে হুন্ডি করে অনলাইন জুয়ার প্ল্যাটফর্ম পরিচালনাকারীর কাছে পাঠানো হতো।

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২৪
Design & Developed BY Cloud Service BD