বৃহস্পতিবার, ৩০ নভেম্বর ২০২৩, ০৭:০৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
সিলেটে তৃণমূল বিএনপির ১৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ শিক্ষাক্রম নিয়ে ফেসবুকে সমালোচনা, ৪ শিক্ষক গ্রেফতার জামালগঞ্জে নিষিদ্ধ জাল পুড়ালো উপজেলা প্রশাসন সিলেটে মাদক মামলায় তিন আসামির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকায় ভোট দিন: শফিক চৌধুরী লিবিয়া থেকে দেশে ফিরেছেন ১৪৩ বাংলাদেশি সুনামগঞ্জে স্ত্রীকে খুনের দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড আ. লীগ আবারও বিজয়ী হয়ে সরকার গঠন করবে: আশাবাদী পররাষ্ট্রমন্ত্রী বুধ ও বৃহস্পতিবার অবরোধ, হরতাল সফলে সিলেট জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের মশাল মিছিল সিলেটে বঙ্গবন্ধু ক্রীড়া শিক্ষাবৃত্তি চেক বিতরণ সম্পন্ন শ্রী শ্রী হরি-গুরুচাঁদ মতুয়া মিশন সিলেট বিভাগের উদ্যোগে শুভ নবান্ন উৎসব ১লা ডিসেম্বর হবিগঞ্জে চলন্ত ট্রাকে আগুন দিলো দুর্বৃত্তরা সুনামগঞ্জ-১ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী হবেন সেলিম আহমেদ মোমেনের সঙ্গে প্রার্থী হচ্ছেন মিসবাহ দুই ম্যাচের দায়িত্ব পেয়ে ‘ধোনি’র মতো অধিনায়ক হতে চান শান্ত




মালয়েশিয়ায় নাইট ক্লাব থেকে ৩৩ বাংলাদেশি আটক

Untitled 13 copy - BD Sylhet News




বিডিসিলেট ডেস্ক : মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশি মালিকানায় পরিচালিত চারটি অবৈধ নাইট ক্লাবে (মুজরা) অভিযান চালিয়েছে দেশটির অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। এ সময় ক্লাব থেকে ৩৩ বাংলাদেশিকে আটক করা হয়েছে। এসব ক্লাবে নাচের জন্য বাংলাদেশ, ভারত, নেপালসহ বিভিন্ন দেশ থেকে নারীদের পাচার করা হয়।

গত সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে সিআইডির উপপরিচালক রুশদি মো. ইসা বলেন, গত ১৫ অক্টোবর রাত আড়াইটায় এই অভিযান শুরু করা হয়। ওই কমপ্লেক্সে প্রায় ১ বছর ৩ মাস ধরে এই অশ্লীল নৃত্যের ক্লাব চলছিল। অ্যান্টি-হিউম্যান ট্রাফিকিং অ্যান্ড মাইগ্রেন্ট স্মাগলিং ডিভিশন, সিআইডি এবং বুকিত আমান পুলিশ যৌথভাবে এই অভিযান পরিচালনা করে।

রুশদি মো. ইসা বলেন, রাজধানী কুয়ালালামপুরে জালান দাং ওয়াঙ্গির উইলাইয়াহ কমপ্লেক্সে চারটি মুজরা বা স্ট্রিপস ক্লাবে অভিযান চালানো হয়। এর প্রত্যেকটির মালিকানা বাংলাদেশিদের। এসব ক্লাবে বিদেশি নারীরা অশ্লীল নৃত্য প্রদর্শন করতেন, যার মূল দর্শনার্থী বাংলাদেশি ও পাকিস্তানিরা।

প্রাথমিকভাবে মানবপাচার সংশ্লিষ্ট তদন্তের অংশ হিসেবে এই অভিযান পরিচালনা করা হয় বলে জানান রুশদি। তিনি জানান, এসব ক্লাব সন্ধ্যা ৭টা থেকে পরের দিন সকাল ৭টা পর্যন্ত পরিচালিত হতো। এখানে মঞ্চে থাকা নারীদের শরীরে টাকা ছুড়তেন দর্শনার্থীরা। যিনি বেশি টাকা ছুড়তেন তার জন্য নৃত্য করতেন এবং বিনোদন দিতেন নারীরা।

রুশদি আরও জানান, দুটি ক্লাবে বাংলাদেশি ম্যানেজার এবং একজন কর্মচারীকে ইমিগ্রেশন আইনের ধারায় আটক করা হয়েছে। এ ছাড়া ইমিগ্রেশন অ্যাক্টের ৬(১) (সি) ধারায় এসব ক্লাব থেকে ৩৩ জন বাংলাদেশি নাগরিককে আটক করা হয়। তারা সবাই ক্লাবের গ্রাহক।

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২৩
Design & Developed BY Cloud Service BD