শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:২২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল ফজল স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত যাদুকাটা নদীর চর থেকে বালুচাপা অবস্থায় শিশুর মরদেহ উদ্ধার সং’ঘ’র্ষ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ধান শুকানোর খলা দ’খ’ল নিয়ে, আহত ৫০ সড়ক দুর্ঘটনায় শিল্পী পাগল হাসান সহ নিহত ২ সিলেটে ব্যবসায়ী হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন শিল্পী সমিতির নির্বাচনে লড়ছেন যেসব তারকা আইএসইউ উপাচার্য পদে পুনরায় নিয়োগ পেলেন অধ্যাপক ড. আউয়াল বর্ষণে ডুবল দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, ঢাকামুখী ৯ ফ্লাইট স্থগিত মালয়েশিয়ায় ২৩ বাংলাদেশিসহ আটক ২৬ দু’দিন বন্ধ থাকবে সিলেট তামাবিল স্থলবন্দরের সব কার্যক্রম সিলেটে সিএনজি ফিলিং স্টেশন বিভাগীয় কমিটির জরুরী সভা শনিবার সিকৃবিতে মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সিলেটে শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ঢেউটিন দিলেন প্রবাসী জাবেদ ঈদুল আযহার সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করলো সৌদি আরব মাধবপুরে চুরির মামলায় বিএনপি নেতা কারাগারে




দুঃসংবাদ দিলেন লায়লা নাঈম

Untitled 8 copy - BD Sylhet News




বিনোদন ডেস্ক : পেশায় দন্ত চিকিৎসক নায়লা নাঈমের শোবিজে পথচলা শুরু হয় র‌্যাম্প মডেল হিসেবে। এরপর ‘আইটেম গার্ল’ হয়ে কাজ করেন বেশ কিছু সিনেমায়। হন আলোচিত-সমালোচিতও। এই শিল্পীর আরও একটি পরিচয় তিনি একজন পশুপ্রেমী। তার বাসায় একাধিক বিড়াল থাকার কারণে আইনের মুখোমুখিও হতে হয়েছে তাকে।

অভিনয়ে আগের মতো খুব একটা নিয়মিত নন নায়লা নাঈম। তবে তার কাজের সবশেষ খোঁজ-খবর পাওয়া যায় ফেসবুকে। যোগাযোগের এই মাধ্যমটিতে বেশ সক্রিয় তিনি। আর এই মাধ্যমেই আলোচিত মডেল জানালেন, দুঃসংবাদ; তার আদরের বিড়ালটি আজ শনিবার মারা গেছে।

নায়লা নাঈম জানান, আজকে থেকে প্রায় ১৫-১৬ বছর আগে ইভা ফারজানার সঙ্গে তার পরিচয়। তখন তার ক্লিনিকের শুরুর সময়। ইভার এক ছোট ভাই তার ক্লিনিকে একটা ঝুড়িসহ বিড়াল রেখে যায়। বয়স প্রায় ৮-৯ মাস হবে। সেই বিড়ালটি তিনি বাসায় নিয়ে যান। পরিবারের সবাই আদর করে নাম দেয় ‘গলু’ আর নায়লা নাঈম ডাকত ‘আলাদিন’ নামে।

এই মডেলের কথায়, ‘দীর্ঘ প্রায় ১৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে গলু আমার সঙ্গে। হঠাৎ করে দুই দিন আগে দুপুরবেলা খাবার দিচ্ছিলাম। দেখলাম, খাবার না খেয়ে গলু লুকানোর জায়গা খুঁজছে। আমি একটু ধমক দিলাম। এরপর খেয়াল করে দেখলাম, ওর পেটটা একটু ফুলে যাচ্ছে। ঘন্টা দুয়েকের মধ্যেই ওর পেটটা অস্বাভাবিক ফোলা শুরু হলো। পরদিন ভোরবেলায় নিয়ে দৌড় দিলাম পশু হাসপাতাল।’

নায়লা নাঈম আরও বলেন, ‘হাসপাতাল থেকে অনেকগুলো টেস্ট এবং এক্সরে করা হলো। পরের দিন ব্লাড টেস্ট করালাম এবং এর রিপোর্ট আজকে দেওয়ার কথা। গতকালকে সন্ধ্যা থেকে গলু আর উঠে দাঁড়াতে পারছে না। যেখানে শুয়ে ছিল ওখানেই আমাদের সবাইকে ছেড়ে চলে গেল। সকালবেলা টিনটিন আপুকে ফোন দিয়ে কেঁদে ফেললাম অনেক। আমার পরপর দুইটা ১৫ বছর ও ১৬ বছরের বিড়াল চলে গেল, একই মাসের ব্যবধানে।’

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২৩
Design & Developed BY Cloud Service BD