শুক্রবার, ১৪ জুন ২০২৪, ১১:২০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
সিলেটে ২৪ ঘণ্টায় ২০৩ মিলিমিটার বর্ষণ সিলেটে আবারও বন্যার শঙ্কা, প্রস্তুত ৫৫১ আশ্রয় কেন্দ্র সিলেটে ২২ দিনে ১৫ কোটি টাকার সাদা পাথর লুট সিলেটসহ ছয় অঞ্চলে ৬০ কি.মি বেগে ঝড় হতে পারে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকার বাজেট অনুমোদন সিলেটে অবিবাহিত পুরুষের হার সবচেয়ে বেশি সিলেট ওসমানী হাসপাতাল ‘কক্লিয়ার ইমপ্লান্ট’ কার্যক্রমে শতভাগ সফলতা অর্জন বিয়ানীবাজারে পুলিশের অভিযানে ৮০ বস্তা চিনি সহ গ্রেফতার ২ সিলেট এসে হঠাৎ অসুস্থ সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী, হেলিকপ্টারে ঢাকায় নেওয়া হয়েছে সিলেটে এসএসসির খাতা চ্যালেঞ্জ করে ফেল থেকে পাস করলেন ৩৫ শিক্ষার্থী সিলেটে বিপুল পরিমান চোরাই মোবাইলসহ গ্রেফতার ৬ সৌদিতে হজে গিয়ে ১৫ বাংলাদেশির মৃত্যু টিলাধসে স্বপরিবারে যুবদল নেতার মৃত্যুতে সিলেট যুবদলের শোক টিকটকার প্রিন্স মামুন গ্রেফতার মসজিদে আজানরত অবস্থায় এক মুসল্লির মৃত্যু




আগের চেয়ে দ্রুত হামলা চালাচ্ছে সাইবার হ্যাকাররা

safos 20230914113903 - BD Sylhet News




তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক : সাইবার নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠান সফোস সম্প্রতি অ্যাকটিভ অ্যাডভারসেরি রিপোর্ট ফর টেক লিডারস ২০২৩ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ২০২৩ সালের প্রথমার্ধে সাইবার হামলাকারীদের আচরণ এবং টুলসগুলো কি ধরনের ছিল সেই সম্পর্কে এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

প্রতিবেদনে সফোস এক্স-অপস ২০২৩ সালের জানুয়ারি থেকে জুলাই মাস পর্যন্ত সফোস ইনসিডেন্ট রেসপন্সের (আইআর) আওতার ঘটনাগুলো বিশ্লেষণ করেছে। বিশ্লেষণে দেখা যায়, সাইবার হামলার শুরুর সময় থেকে হামলাটি সনাক্ত হওয়া পর্যন্ত, এর সম্পূর্ণ সময়কাল গড়ে পূর্বের চেয়ে কমে এসেছে। ১০ দিনের পরিবর্তে সাইবার হামলাগুলো পরবর্তীতে ৮ দিনে সংঘটিত হয়েছে। অন্যদিকে, র‍্যানসমওয়্যারের হামলাগুলো ঘটেছে কেবল ৫ দিনের মধ্যে। ২০২২ সালে, হামলার এই সময়সীমা গড়ে কমে এসেছিল ১৫ থেকে ১০ দিনে।

এই প্রতিবেদনে দেখা গেছে, অ্যাকটিভ ডিরেক্টরিতে (এডি) পৌঁছাতে হামলারকারীদের গড়ে এক দিনেরও কম সময় লেগেছে। এতে তারা প্রবেশ করতে পারে প্রায় ১৬ ঘণ্টার মধ্যে। অ্যাকটিভ ডিরেক্টরি সাধারণত একটি প্রতিষ্ঠানের রিসোর্সগুলোর আইডেন্টিটি এবং অ্যাক্সেসগুলো পরিচালনা করে। অর্থাৎ অ্যাকটিভ ডিরেক্টরি ব্যবহার করতে পারলে হামলাকারীরা সহজেই সিস্টেমে লগ ইন করতে সক্ষম হয় এবং সিস্টেমের বড় ধরনের ক্ষতি করতে পারে।

এছাড়া র‍্যানসমওয়্যারের আক্রমণের ক্ষেত্রে দেখা যায়, ৬৯% ঘটনায় হামলাগুলো গড়ে মাত্র পাঁচ দিনের মধ্যে সংঘটিত হয়। আর ৮১% র‍্যানসমওয়্যারের হামলায় ফাইনাল পেলোড নিয়মিত কর্মঘণ্টার বাইরে চালু করা হয়েছিল। আবার যেই হামলাগুলো কর্মদিবসের মধ্যেই সংঘটিত হয়েছিল সেগুলোর ক্ষেত্রে সময় লেগেছিল ৫ ঘণ্টা। প্রতিবেদনে আরও উঠে এসেছে, সপ্তাহ আগানোর সাথে সাথে সনাক্ত করা আক্রমণের সংখ্যাও বৃদ্ধি পেয়েছে। যেখানে প্রায় অর্ধেক (৪৩%) র‍্যানসমওয়্যারের হামলা শুক্রবার বা শনিবার সনাক্ত করা হয়েছে।

প্রতিবেদনটি সফোস ইনসিডেন্ট রেসপন্সের তদন্তের উপর ভিত্তি করে তৈরি করা হয়েছে। এতে বিশ্বের ২৫টি সেক্টরের উপর তথ্য নেয়া হয় যেখানে প্রতিষ্ঠানগুলো ছয়টি মহাদেশে থেকে মোট ৩৩টি ভিন্ন দেশের ছিল। ৮৮ শতাংশ ঘটনা এমন প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে নেয়া হয়েছে যেখানে কর্মীসংখ্যা ১,০০০ এরও কম।

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২৪
Design & Developed BY Cloud Service BD