রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
আমেরিকা ইমিগ্রেন্ট ভিসা সংক্রান্ত সেমিনার আগামী ৭ জুন বিকেলে ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নেবে গভীর নিম্নচাপ, উত্তাল সাগর গ্রীষ্মকালীন ও ঈদুল আজহার ছুটিতে ২৮ দিন বন্ধ থাকছে শাবিপ্রবি এমপির ছেলে এমপি হোক আমি চাইনা: ব্যারিস্টার সুমন সুনামগঞ্জে ফুটবল খেলা নিয়ে দু’পক্ষের সংর্ঘষে আহত ৩০ জৈন্তাপুরে কথা কাটাকাটি নিয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৬ মেয়র আনোয়ারুজ্জামানকে সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের অভিনন্দন সিসিকের হোল্ডিং ট্যাক্স বাতিল, রি-এসেসমেন্টের সিদ্ধান্ত যুক্তরাজ্যের লোওয়েস্টফ্টে প্রথম মেয়র হলেন জগন্নাথপুরের নাসিমা সিলেটে আরেকটি কূপে মিলল গ্যাসের সন্ধান জৈন্তাপুরে ফেনসিডিলসহ নারী আটক তীব্র গরমে বিশুদ্ধ পানি ও স্যালাইন বিতরণ করছে তপোবন যুব ফোরাম প্রধানমন্ত্রী ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট ও সোনার বাংলাদেশে পরিণত করতে চান: এড. নাসির খান জলবায়ু পরিবর্তনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় কৃষি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছে: কৃষিমন্ত্রী শ্রীমঙ্গলে মুখে বিষ ঢেলে প্রতিবন্ধী শিশু সন্তান হত্যা, বাবা-মা আটক




সবাই আন্তরিক হলে বিচারপ্রার্থী মানুষের কষ্ট লাঘব হবে: প্রধান বিচারপতি

image 717256 1694525918 - BD Sylhet News




বিডিসিলেট ডেস্ক : সবাই আন্তরিক হলে বিচারপ্রার্থী মানুষের কষ্ট লাঘব হবে বলে মন্তব্য করেছেন নবনিযুক্ত প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান। তিনি বলেছেন, বিচার বিভাগের ওপর আস্থার কমতি যেটা হয়েছে, এটা শুধু বিচারকদের জন্য- তা নয়। বিচার বিভাগের সঙ্গে জড়িত সবাই যদি আন্তরিক হয় তাহলে বিচারপ্রার্থী মানুষের কষ্ট লাঘব হবে।

বুধবার দায়িত্বভার গ্রহণের পর সুপ্রিম কোর্টে গণমাধ্যমকর্মীদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘বিচারপ্রার্থী কে কখন হবে কেউ বলতে পারে না। আপনার ঘরে কখন ঝামেলা আসবে, আমার কখন ঝামেলা আসবে আমরা তো কেউ জানি না। আসলে আমাদের কোর্টের শরণাপন্ন হতে হয়।’

তিনি বলেন, ‘রাজনৈতিকভাবে ব্যবহৃত হচ্ছে বিচার বিভাগ এটা আমি মনে করি না। বিচারকরা বিচারকদের কাজ করে যাচ্ছেন, তাদের মতো করে। আমি শুধু একটি কথা বলবো, যারা রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত আছেন, আমাদের আইনজীবী বন্ধুরা যারা রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত হচ্ছেন- তারা রাজনীতিটা করুন কিন্তু আদালন অঙ্গনে তারা যেন সহনশীলতার পরিচয় দেন। তারা যেন একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হন। তাহলে এই উত্তাপগুলো আদালতে ছড়াবে না। সমাজের রাজনৈতিক বিষয়গুলো সম্বন্ধে আমাদের মন্তব্য করা ঠিক হবে না এবং এটা আমার বিষয়ও না। আমাদের সামনে যখন বিচার আসে, কোনো একটি মামলা আসে, সেটা আমাদের এবং অধঃস্তন আদালতে নিষ্পত্তি করতে হয়।’

প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘আস্থার ঘাটতি সর্বত্রই আছে আমাদের। বিচার বিভাগের ওপরে আস্থার ঘাটতি নেই এ কথা আমি বলবো না। আমাদের ওপরে আস্থার যেটা আপনারা বলছেন, এখনো আপনার কোনো অসুবিধা হলে আপনি কোর্টেই যাবেন। আমাদের ডিসপোজালের রেট কিন্তু দিনের পর দিন বাড়ছে। মানুষের যদি আস্থাই না থাকবে, মানুষ কোর্টে আসবে কেন! আস্থা আছে বলেই মানুষ কোর্টে আসে। হ্যাঁ, তবে, আস্থা হান্ড্রেড পারসেন্ট আছে এ কথাটা আমি বলতে পারব না। এটা বলার মতো অবস্থায় আমরা নেই। যেমন আমি বলেছি, কোনো সেক্টর নেই যেটার ওপর মানুষের আস্থার কমতি হয়নি।’

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২৪
Design & Developed BY Cloud Service BD