শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৩০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল ফজল স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত যাদুকাটা নদীর চর থেকে বালুচাপা অবস্থায় শিশুর মরদেহ উদ্ধার সং’ঘ’র্ষ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ধান শুকানোর খলা দ’খ’ল নিয়ে, আহত ৫০ সড়ক দুর্ঘটনায় শিল্পী পাগল হাসান সহ নিহত ২ সিলেটে ব্যবসায়ী হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন শিল্পী সমিতির নির্বাচনে লড়ছেন যেসব তারকা আইএসইউ উপাচার্য পদে পুনরায় নিয়োগ পেলেন অধ্যাপক ড. আউয়াল বর্ষণে ডুবল দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, ঢাকামুখী ৯ ফ্লাইট স্থগিত মালয়েশিয়ায় ২৩ বাংলাদেশিসহ আটক ২৬ দু’দিন বন্ধ থাকবে সিলেট তামাবিল স্থলবন্দরের সব কার্যক্রম সিলেটে সিএনজি ফিলিং স্টেশন বিভাগীয় কমিটির জরুরী সভা শনিবার সিকৃবিতে মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সিলেটে শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ঢেউটিন দিলেন প্রবাসী জাবেদ ঈদুল আযহার সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করলো সৌদি আরব মাধবপুরে চুরির মামলায় বিএনপি নেতা কারাগারে




শিশুর ফাস্ট ফুড খাওয়ার আসক্তি কমাবেন যেভাবে

2 samakal 64be2a7c98275 - BD Sylhet News




লাইফস্টাইল ডেস্ক : সন্তানকে নিয়ে বাবা-মায়েদের সবচেয়ে বড় উদ্বেগের মধ্যে একটি হল শিশুদের পুষ্টিকর এবং স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ানো। এখন শিশুরা খাওয়া-দা ওয়া নিয়ে প্রায়ই বিরক্ত করে। স্বাস্থ্যকর খাবারের পরিবর্তে তারা অস্বাস্থ্যকর চর্বি এবং শর্করাযুক্ত ফাস্ট ফুড খেতে চায়। কিন্তু এসব খাবার শিশুদের শৈশবকালীন স্থূলতা বাড়ানোর সাথে সাথে পরবর্তীতে নানা স্বাস্থ্য জটিলতা তৈরি করে।

শিশুর ফাস্ট ফুড খাওয়ার আসক্তি কমাতে কিছু বিষয় অনুসরণ করতে পারেন। যেমন-

শিশুর জন্য অনুকরণীয় হোন: শিশুরা প্রায়শই তাদের বাবা-মাকে অনুকরণ করে এবং তাদের উপর নির্ভর করে। এ কারণে, ফাস্ট ফুডের পরিবর্তে ঘরেই পুষ্টিকর খাবার তৈরির উদাহরণ তৈরি করুন।তাদের বোঝান স্বাস্থ্যকর খাবারও সুস্বাদু হতে পারে।

শিশুদের সঙ্গে খাবার নিয়ে কথা বলুন: শিশুদের সুষম খাদ্যের গুরুত্ব সম্পর্কে শেখান। পাশাপাশি অতিরিক্ত ফাস্ট-ফুড খাওয়ার নেতিবাচক প্রভাবগুলি ব্যাখ্যা করুন। খাবারের পুষ্টির মান এবং ঘন ঘন প্রক্রিয়াজাত খাবার খাওয়ার ক্ষতিকর দিকগুলো জানান।

খাবার পরিকল্পনা এবং তৈরিতে তাদের অন্তর্ভক্ত করুন: খাবার পরিকল্পনা এবং তৈরিতে শিশুদের সক্রিয়ভাবে জড়িত করুন, তাদের পরামর্শ নিন এবং বাস্তবায়নের চেষ্টা করুন। দোকানে গিয়ে তাদের ফল এবং সবজি বাছাই করতে দিন। রান্নাঘরে কাজে সাহায্য চান। এতে তাদের বাড়ির খাবারের প্রতি আগ্রহ তৈরি হবে।

ফাস্ট ফুডকে ট্রিট হিসাবে দেওয়া সীমিত করুন: ফাস্ট ফুডকে পুরোপুরি না বলার পরিবর্তে, মাঝে মাঝে খাবারের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করুন। সপ্তাহে একবার বা বিশেষ অনুষ্ঠানের জন্য কত ঘন ঘন এটি খাওয়া যেতে পারে সে সম্পর্কে স্পষ্ট নিয়ম সেট করুন।

স্বাস্থ্যকর স্ন্যাকস যোগ করুন: তাজা ফল, কাটা শাকসবজি, হোল গ্রেইন এবং দইয়ের মতো বিকল্প খাবার ঘরে রাখুন। প্রক্রিয়াজাত স্ন্যাকস এবং চিনিযুক্ত খাবার সীমিত করুন।

স্বাস্থ্যকর বিকল্প খাবারের রেস্তোরোঁ : বাইরে খাওয়ার সময়, স্বাস্থ্যকর বিকল্প খাবারের রেস্তোঁরাগুলি বেছে নিন। সালাদ, ভাজাভুজির বিকল্প এবং তাজা খাবার আছে এমন জায়গা খুঁজুন। সেই খাবার খাওয়ার সুবিধা শিশুদের কাছে ব্যাখ্যা করে তাদেরকে স্বাস্থ্যকর খাবার খেতে উৎসাহিত করুন। সূত্র: ইন্ডিয়া টিভি

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২৩
Design & Developed BY Cloud Service BD