রবিবার, ২১ জুলাই ২০২৪, ০৫:১৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
২১, ২৩ ও ২৫ জুলাইয়ের সব বোর্ডের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত কোটা সংস্কারের ব্যাপারে নীতিগতভাবে আমরা একমত: আইনমন্ত্রী ফেসবুকে বিভিন্ন ধরনের গুজব ছড়ানো হচ্ছে, গুজবে কান না দেয়ার অনুরোধ পুলিশের আজ আমেরিকান দূতাবাস ও সকল ভারতীয় ভিসা সেন্টার বন্ধ ঘোষণা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের তথ্য যাচাই করে সিদ্ধান্ত নেয়ার আহ্বান জানালেন পলক সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের জরুরি সভা: কর্মসূচি ঘোষণা আগামীকাল সারা দেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ ঘোষণা জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণে প্রধানমন্ত্রী যা বললেন শাবিপ্রবির হলে তল্লাশী, আগ্নেয়াস্ত্র ও মদের বোতল উদ্ধার ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে ৪ ছাত্রলীগ নেতার পদত্যাগ সিলেটে আওয়ামী লীগের উদ্যোগে গায়েবানা জানাজা অনুষ্ঠিত সন্ধ্যায় জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী সিলেটে সড়ক দু-র্ঘ’ট’না’য় ২ কিশোর নি-হ-ত কারো মা-বাবার বুক এভাবে খালি হতে পারে না: শাকিব খান শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আজীবন নিষিদ্ধ অধ্যাপক জাফর ইকবাল




সন্তানের লা-শ ব্যাগে নিয়ে ফিরলেন বাবা!

FB IMG 1684140568574 - BD Sylhet News




বিডি সিলেট ডেস্ক:: টাকার অভাবে অ্যাম্বুলেন্স জোগাড় করতে না পেরে মৃত শিশুকে ব্যাগে নিয়ে শিলিগুড়ি থেকে কালিয়াগঞ্জে ফিরলেন এক বাবা। মর্মস্পর্শী এ ঘটনা ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উত্তর দিনাজপুর জেলার কালিয়াগঞ্জে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কালিয়াগঞ্জ ব্লকের মুস্তাফানগর গ্রামপঞ্চায়েতের ডাঙ্গিপাড়া গ্রামের বাসিন্দা অসীম দেব শর্মার স্ত্রী যমজ সন্তানের জন্ম দেন। পাঁচ মাস পর দুই শিশুই অসুস্থ হয়ে পড়ে। গত ৭ মে তাদের দুই জনকে কালিয়াগঞ্জ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাদের রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। পরে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয় ওই দুই শিশুকে। গত ১১ মে এক শিশুকে নিয়ে বাড়ি ফিরে আসেন অসীম দেব শর্মার স্ত্রী। কিন্তু চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার রাতে অন্য শিশুর মৃত্যু হয়।

টাকার অভাবে অ্যাম্বুলেন্স ভাড়া করতে পারেনি অসীম। তাই রোববার ভোরে মৃত সন্তানের লাশ ব্যাগে ভরে শিলিগুড়ি থেকে বেসরকারি বাসে উঠে রায়গঞ্জ এসে পৌঁছান। সেখান থেকে আরেকটি বাসে চেপে কালিয়াগঞ্জে পৌঁছান।

অসীম পেশায় একজন শ্রমিক। তিনি বলেন, চিকিৎসা করাতে গিয়ে সব টাকা শেষ হয়ে গিয়েছে। ছেলের মৃতদেহ নিয়ে আসার জন্য অ্যাম্বুলেন্সের ভাড়া দিতে হতো ৮ হাজার টাকা। কিন্তু টাকা তো নেই। তাই কাঁধের ব্যাগে ছেলের লাশ ভরে নিয়ে শিলিগুড়ি থেকে বাসে উঠি। কালিয়াগঞ্জে বিবেকানন্দ মোড়ে নামার পর গৌরাঙ্গ দাস নামে একজনের সঙ্গে যোগাযোগ করি। তিনি অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা করে দেন। তাতেই বাড়ি ফিরি।

বিজেপি কর্মী গৌরাঙ্গ দাস বলেন, এটা খুবই কষ্টদায়ক ঘটনা। ঘটনার খবর পেয়ে রাজনৈতিক ভাবে নয়, মানবিকতার খাতিরে একটি অ্যাম্বুলেন্স পাঠানোর ব্যবস্থা করেছি। যেন মৃত শিশুটিকে অ্যাম্বুলেন্সে নিয়ে যেতে পারে তার অসহায় বাবা।

অন্যদিকে, এ নিয়ে তৃণমূলের স্থানীয় ব্লক সভাপতি নিতাই বৈশ্য বলেন, ঘটনাটি খুবই বেদনাদায়ক। আগে জানতে পারলে অবশ্যই ব্যবস্থা নিতাম।সূত্র- সমকাল

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২৪
Design & Developed BY Cloud Service BD