শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:১০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল ফজল স্মরণে শোকসভা অনুষ্ঠিত যাদুকাটা নদীর চর থেকে বালুচাপা অবস্থায় শিশুর মরদেহ উদ্ধার সং’ঘ’র্ষ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ধান শুকানোর খলা দ’খ’ল নিয়ে, আহত ৫০ সড়ক দুর্ঘটনায় শিল্পী পাগল হাসান সহ নিহত ২ সিলেটে ব্যবসায়ী হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন শিল্পী সমিতির নির্বাচনে লড়ছেন যেসব তারকা আইএসইউ উপাচার্য পদে পুনরায় নিয়োগ পেলেন অধ্যাপক ড. আউয়াল বর্ষণে ডুবল দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর, ঢাকামুখী ৯ ফ্লাইট স্থগিত মালয়েশিয়ায় ২৩ বাংলাদেশিসহ আটক ২৬ দু’দিন বন্ধ থাকবে সিলেট তামাবিল স্থলবন্দরের সব কার্যক্রম সিলেটে সিএনজি ফিলিং স্টেশন বিভাগীয় কমিটির জরুরী সভা শনিবার সিকৃবিতে মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সিলেটে শিলাবৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ঢেউটিন দিলেন প্রবাসী জাবেদ ঈদুল আযহার সম্ভাব্য তারিখ ঘোষণা করলো সৌদি আরব মাধবপুরে চুরির মামলায় বিএনপি নেতা কারাগারে




নবীজি (সা.)-এর সুন্নত অনুসারে ইবাদত করা

sum of doa 20220213121438 - BD Sylhet News




আবদুল্লাহ আল-মাহমুদ : রাসুল (সা.)-এর সুন্নত অনুযায়ী ইবাদত করা। আল্লাহ বলেন, ‘রাসুল তোমাদের যা দেন তা তোমরা গ্রহণ করো এবং যা থেকে তোমাদের নিষেধ করেন তা থেকে বিরত থাকো।’ (সুরা হাশর, আয়াত : ৭)

রাসুল (সা.) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি এমন কোনো আমল করল, যাতে আমাদের নির্দেশনা নেই তা প্রত্যাখ্যাত।’ (মুসলিম, হাদিস : ১৭১৮)

তিনি আরো বলেন, ‘যে ব্যক্তি আমাদের শরিয়তে এমন কিছু নতুন সৃষ্টি করল, যা তার মধ্যে নেই, তা প্রত্যাখ্যাত।’ (বুখারি, হাদিস : ২৬৯৭; মুসলিম, হাদিস : ১৭১৮)

হুজায়ফা ইবনুল ইয়ামান (রা.) বলেন, ‘যে সব ইবাদত রাসুল (সা.)-এর সাহাবিরা করেননি, সেসব ইবাদত তোমরাও করো না। কেননা পূর্ববর্তী লোকেরা [রাসুল (সা.) ও সাহাবায়ে কেরাম] পরবর্তী লোকদের জন্য কোনো অসম্পূর্ণতা রেখে যাননি। অতএব হে মুসলিমসমাজ, তোমরা আল্লাহকে ভয় করো এবং পূর্ববর্তীদের রীতিনীতি গ্রহণ করো।’ (আবু ইসহাক আশ-শাতেবি, আল-ইতিসাম ২/১৩২)

ফুজাইল ইবনু ইয়াজ (রহ.) বলেন, ‘আমল খালেস হলেও যদি তা সঠিক না হয়, তাহলে তা (আল্লাহর কাছে) কবুল হবে না। আর আমল সঠিক হলেও যদি তা খালেছ না হয়, তাহলেও তা কবুল হবে না; যতক্ষণ পর্যন্ত আমলটি খালেস ও সঠিক না হয়। খালেস হলো, আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের জন্যই ইবাদত করা, আর আমলের শুদ্ধতা হলো, রাসুল (সা.)-এর সুন্নত অনুযায়ী আমল করা।’ (শায়খুল ইসলাম ইবনু তায়মিয়া, আল-উবুদিয়াহ ২/৪৭৬)

সুতরাং তাওহিদুল ইবাদত কায়েম করতে হলে দুটি মৌলিক বিষয়ের ওপর প্রতিষ্ঠিত থাকতে হবে। (১) আল্লাহ ব্যতীত অন্য কোনো কিছুর ইবাদত না করা। অর্থাৎ শিরকমুক্ত ইবাদত করা। (২) কোরআন ও হাদিস অস্বীকৃত কোনো ইবাদত না করা। অর্থাৎ বিদআতমুক্ত ইবাদত করা। আর এটাই ইসলামের প্রথম ও প্রধান স্তম্ভ। মহান আল্লাহ আমাদের আমল করার তাওফিক দান করুন।

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২৩
Design & Developed BY Cloud Service BD