শনিবার, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৯:০০ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
ফেঞ্চুগঞ্জে তজমুল আলী চত্বর টু জেটিঘাট সড়কের উদ্বোধন করলেন এমপি হাবিব দুর্গাপূজা উপলক্ষে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রতি সিলেট জেলা আ’লীগের শুভেচ্ছা মিছবাহ উদ্দিনের মাতার মৃত্যুতে দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপির শোক কঠোর নিরাপত্তায় শুটিংয়ে শাকিব-বুবলী রোহিঙ্গা সংকট কোনভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়: জাতিসংঘ সভাপতি সুনামগঞ্জে ভাতিজার হাতে চাচা খুন, আটক ২ সিলেটে বড় জয়ে শুরু ভারতের এশিয়া কাপ যেকোন মূল্যে দেশে চলমান উজ্জ্বল সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে হবে জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবস উপলক্ষে নিসচা সিলেট মহানগরের মাসব্যাপী কর্মসূচি শুরু বড়লেখায় ইনসাফ রক্তদান ও সমাজকল্যাণ সংস্থার ২৭ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন ভোটের লড়াইয়ে দুই সতিন, স্বামী হাসপাতালে থাইল্যান্ডকে ৯ উইকেটে হারিয়ে বাংলাদেশের শুভসূচনা আজ আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সির উম্মোচন যুক্তরাষ্ট্রে আঘাত হেনেছে হারিকেন ইয়ান, নিহত ৪৫




সিলেট পুলিশ লাইন্সে ‘স্মৃতি ৭১’ উদ্বোধন

298114084 5359823860766488 6471311912520818127 n - BD Sylhet News




বিডিসিলেট ডটকম : মহান মুক্তিযুদ্ধের সময়ের বীর শহিদদের স্মরণে সিলেটে নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভ ‘স্মৃতি ৭১’-এর উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার (৭ আগস্ট) দুপুর ১টায় নগরীর রিকাবিবাজারস্থ জেলা পুলিশ লাইন্সে এ স্মৃতিস্তম্ভ উদ্বোধন করেন সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি (উপ-মহাপরিদর্শক) মফিজ উদ্দিন আহম্মেদ পিপিএম ও সিলেট জেলা পুলিশ সুপার (পদোন্নতিপ্রাপ্ত অতিরিক্ত ডিআইজি) মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম।

সিলেটে বীর শহিদদের গণকবর সংরক্ষণ এবং মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও চেতনা নতুন প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যেও ‘স্মৃতি ৭১’ স্থাপন করা হয়েছে। জেলা পুলিশ সুপার ফরিদ উদ্দিনের প্রচেষ্টায় ও জেলা পুলিশের উদ্যোগে এ স্মৃতিস্তম্ভ স্থাপন করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ (এসএমপি) কমিশনার নিশারুল আরিফ, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শফিকুর রহমান চৌধুরী, মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমেদ, সিলেট জেলা প্রেসক্লাব সভাপতি আল আজাদ, সিনিয়র সাংবাদিক ইকরামুল কবির, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হোসেন, সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাব সভাপতি মুহিত চৌধুরী, সিলেট জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা সুব্রত চক্রবর্তী জুয়েল ও মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার ভবতোষ রায় বর্মণ রানা।

জানা যায়, মহান মুক্তিযুদ্ধে সিলেটে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর হাতে শহীদ হন অনেকে। তাদের মধ্যে বীর মুক্তিযােদ্ধাসহ অসংখ্য মানুষকে গণকবর দেওয়া হয় শহরের রিকাবিবাজার এলাকার পুলিশ লাইনসের ভেতর। স্বাধীনতার ৫০ বছর পর এখানে শহীদদের স্মরণে নির্মিত হলো স্মৃতিস্তম্ভ।

বীর মুক্তিযােদ্ধা ও স্থানীয় ব্যক্তিদের তথ্য অনুযায়ী- মুক্তিযুদ্ধের পরপরই গণকবরটি চিহ্নিত করা হয়। রিকাবিবাজারের পার্শ্ববর্তী মুন্সিপাড়াসহ শহরের বিভিন্ন এলাকার বীর মুক্তিযােদ্ধা ও সাধারণ মানুষকে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী হত্যা করে ফেলে রাখে। পরে এসব শহীদের মরদেহ এনে স্বজন ও পরিচিতজনেরা পুলিশ লাইনসের ভেতরে একটি ডােবায় গণকবর দেন। কতজনকে এখানে গণকবর দেওয়া হয়েছে, এমন সঠিক পরিসংখ্যান কোথাও সংরক্ষিত না থাকলেও গণকবর দেওয়া আটজন শহিদের নাম-তথ্য জানা গেছে। তাঁরা ওইসময় পুলিশ বাহিনীতে চাকরিরত ছিলেন। তাঁরা হলেন- সহকারী উপ-পরিদর্শক আবদুল লতিফ, হাবিলদার আবদুর রাজ্জাক, কনস্টেবল মােক্তার আলী, শহর আলী, আবদুস ছালাম, মাে. হানিফ ব্যাপারী, মনিরুজ্জামান ও পরিতােষ কুমার।

এসব পুলিশ সদস্য ১৯৭১ সালের ৪ এপ্রিল জিন্দাবাজার এলাকার তৎকালীন ন্যাশনাল ব্যাংকে (বর্তমানে সােনালী ব্যাংক) দায়িত্ব পালন করছিলেন। সেদিন পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ব্যাংকের টাকা লুটের উদ্দেশ্যে পুলিশ সদস্যদের হত্যা করে। পরে ৬ এপ্রিল এসব শহিদকে পুলিশ লাইনসে গণকবর দেওয়া হয়। এর বাইরে শহরে পাকিস্তানি সেনাদের হাতে শহিদ অনেককেও এখানে কবর দেওয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD