বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
বেঁচে থাকলে আবার সব গুছিয়ে নেব: প্রধানমন্ত্রী হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মুফতি শরিফউল্লাহ গ্রেপ্তার মুসলিমের প্রতি জো বাইডেনের রমজানের শুভেচ্ছা শিক্ষাবিদ মজির উদ্দিন আনসারের হার্টে পেসমেকার পুনঃস্থাপন বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে জাতির উদ্দেশ্যে প্রদত্ত প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের পূর্ণ বিবরণ সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে – অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার পরিতোষ ঘোষ সাংবাদিকদের ‘মুভমেন্ট পাস’ লাগবে না: আইজিপি সিলেট জেলায় সেহরি ও ইফতারের সময়সূচী কঠোর লকডাউনে খোলা থাকবে ব্যাংক চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার রোজা চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার থেকে রোজা মুহিত চৌধুরীর শারিরীক অবস্থার অবনতি: ফের আইসিইউতে স্থানান্তর বড়লেখায় নিসচা’র যুব বিষয়ক সম্পাদক মুহাম্মদ বদরুল ইসলামের স্বেচ্ছায় রক্তদান জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী আজ ২০৩০ সালে রমজান মাস হবে দুইটি
cloudservicebd.com

চকরিয়ায় নির্যাতিত সেই মাসহ দুই মেয়ের জামিন

20200823 131757 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ ডেস্ক::কক্সবাজারের চকরিয়ার আলোচিত গরু চুরির অভিযোগে রশি দিয়ে বেঁধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক মারধরের ঘটনায় গ্রেফতার পাঁচজনের মধ্যে মা-মেয়েসহ তিনজনকে জামিন দিয়েছে আদালত।সোমবার সকালে চকরিয়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট রাজিব কুমার দেব এই জামিন দেন।

জামিন প্রাপ্তরা হলেন- চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কুসুমপুর ইউপির ৯ নম্বর ওয়ার্ডের আবুল কালামের স্ত্রী পারভীন আক্তার, তার মেয়ে সেলিনা আক্তার ও রোজিনা আক্তার।

চকরিয়া আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ওমর ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রোববার সন্ধ্যায় ঘটনাটি তুলে ধরে চকরিয়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক রাজিব কুমার দেবের আদালতে আসামিদের জামিনের জন্য প্রার্থনা করেন অ্যাডভোকেট ইলিয়াছ আরিফের নেতৃত্বে একদল আইনজীবী।

সময় আদালতের বিচারক রাজিব কুমার দেব আসামিদের আদালতে উপস্থিত করার জন্য নির্দেশ দেন। পরে পুলিশ সোমবার সকালে মা পারভীন আক্তার ও মেয়ে সেলিনা আক্তারকে আদালতে উপস্থিত করেন। এ সময় আদালত মা-মেয়েসহ তিনজনকে জামিন দেন। অন্য দুই আসামির জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউপিতে গরু চুরির অভিযোগে মা-মেয়েসহ পাঁচজনকে রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করে স্থানীয়রা। পরে তাদের রশি দিয়ে বেঁধে প্রকাশ্যে সড়কে ঘুরিয়ে স্থানীয় ইউপির চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিরানের কাছে নিয়ে আসলে তিনিও দ্বিতীয় দফায় মারধর করেন। এতে তারা অসুস্থ হয়ে যান। পরে পুলিশ খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে।সূত্র:-ডেইলি বাংলাদেশ

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD