শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০৩:০৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
জকিগঞ্জের প্রথম উপজেলা চেয়ারম্যান কয়েস চৌধুরীর স্মরণ সভা আজ একটি মানবিক সাহায্যের আবেদন জাহানারা কাঞ্চনের ২৭তম মৃত্যুবার্ষিকীতে বড়লেখা নিসচা’র দোয়া মাহফিল ছালিয়া সবুজ বাংলা যুব সংঘের ১১ সদস্যের কমিটি ঘোষণা জকিগঞ্জে মাওলানা মুজম্মিল আলীর ইন্তেকাল, দাফন সম্পন্ন ছাতকে দূর্গোৎসব শুরু, পূজা মন্ডপ পরিদর্শন পররাষ্ট্রমন্ত্রী সিলেটের সাংবাদিকদেরকে ধন্যবাদ জানালেন ছাতকে নৌ-পথের ছিনতাইকারী ইদন মিয়া গ্রেফতার অসহায় মানুষের আশ্রয়স্থল সিলেটের এম এ শাকুর সিদ্দিকী বড়লেখায় জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসে নিসচা’র বর্ণাঢ্য র‍্যালি সিলেটের পুলিশ কমিশনারসহ ঊর্ধ্বতন ১৯ কর্মকর্তা বদলি লাইসেন্সের প্রদানে অনিয়ম দূর করতে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের প্রতি নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর কিবরিয়া হত্যা মামলা : সিলেটের আদালতে বাবরসহ ১১ জন হাজি জাতীয় নিরাপদ সড়ক দিবসে নিসচা সিলেট মহানগরের বর্ণাঢ্য র‌্যালী হাসপাতালেও নথিপত্র স্বাক্ষর অব্যাহত রেখেছেন- তথ্যমন্ত্রী
cloudservicebd.com

চকরিয়ায় নির্যাতিত সেই মাসহ দুই মেয়ের জামিন

20200823 131757 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ ডেস্ক::কক্সবাজারের চকরিয়ার আলোচিত গরু চুরির অভিযোগে রশি দিয়ে বেঁধে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান কর্তৃক মারধরের ঘটনায় গ্রেফতার পাঁচজনের মধ্যে মা-মেয়েসহ তিনজনকে জামিন দিয়েছে আদালত।সোমবার সকালে চকরিয়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট রাজিব কুমার দেব এই জামিন দেন।

জামিন প্রাপ্তরা হলেন- চট্টগ্রামের পটিয়া উপজেলার কুসুমপুর ইউপির ৯ নম্বর ওয়ার্ডের আবুল কালামের স্ত্রী পারভীন আক্তার, তার মেয়ে সেলিনা আক্তার ও রোজিনা আক্তার।

চকরিয়া আইনজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট ওমর ফারুক বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রোববার সন্ধ্যায় ঘটনাটি তুলে ধরে চকরিয়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক রাজিব কুমার দেবের আদালতে আসামিদের জামিনের জন্য প্রার্থনা করেন অ্যাডভোকেট ইলিয়াছ আরিফের নেতৃত্বে একদল আইনজীবী।

সময় আদালতের বিচারক রাজিব কুমার দেব আসামিদের আদালতে উপস্থিত করার জন্য নির্দেশ দেন। পরে পুলিশ সোমবার সকালে মা পারভীন আক্তার ও মেয়ে সেলিনা আক্তারকে আদালতে উপস্থিত করেন। এ সময় আদালত মা-মেয়েসহ তিনজনকে জামিন দেন। অন্য দুই আসামির জামিন আবেদন নামঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউপিতে গরু চুরির অভিযোগে মা-মেয়েসহ পাঁচজনকে রশি দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করে স্থানীয়রা। পরে তাদের রশি দিয়ে বেঁধে প্রকাশ্যে সড়কে ঘুরিয়ে স্থানীয় ইউপির চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম মিরানের কাছে নিয়ে আসলে তিনিও দ্বিতীয় দফায় মারধর করেন। এতে তারা অসুস্থ হয়ে যান। পরে পুলিশ খবর পেয়ে তাদের উদ্ধার করে।সূত্র:-ডেইলি বাংলাদেশ

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৭ - ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD