বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০৫:২২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
বেঁচে থাকলে আবার সব গুছিয়ে নেব: প্রধানমন্ত্রী হেফাজতের কেন্দ্রীয় নেতা মুফতি শরিফউল্লাহ গ্রেপ্তার মুসলিমের প্রতি জো বাইডেনের রমজানের শুভেচ্ছা শিক্ষাবিদ মজির উদ্দিন আনসারের হার্টে পেসমেকার পুনঃস্থাপন বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে জাতির উদ্দেশ্যে প্রদত্ত প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের পূর্ণ বিবরণ সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে – অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার পরিতোষ ঘোষ সাংবাদিকদের ‘মুভমেন্ট পাস’ লাগবে না: আইজিপি সিলেট জেলায় সেহরি ও ইফতারের সময়সূচী কঠোর লকডাউনে খোলা থাকবে ব্যাংক চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার রোজা চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার থেকে রোজা মুহিত চৌধুরীর শারিরীক অবস্থার অবনতি: ফের আইসিইউতে স্থানান্তর বড়লেখায় নিসচা’র যুব বিষয়ক সম্পাদক মুহাম্মদ বদরুল ইসলামের স্বেচ্ছায় রক্তদান জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী আজ ২০৩০ সালে রমজান মাস হবে দুইটি
cloudservicebd.com

মা-মেয়েকে কোমরে রশি বেঁধে পেটালো চেয়ারম্যানের লোকজন

20200823 131757 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ ডেস্ক::কক্সবাজারের চকরিয়ায় মা ও মেয়েকে গরু চোর অপবাদ দিয়ে নির্মমভাবে পেটানোর অভিযোগ ওঠেছে এক চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে। দিনে-দুপুরে একদল লোক মা-মেয়েকে কোমরে রশি বেঁধে রাস্তায় ঘুরানোর ছবিটি ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, কোমরে রশি বেঁধে দুই নারীকে প্রকাশ্য সড়কে হাঁটিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। দুই নারীর চারিপাশে উৎসুক লোকজন এই ঘটনা দেখছে। পরে পুলিশ এসে মা-মেয়েকে উদ্ধার করে চকরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করে।

গত শুক্রবার (২১ আগস্ট) দুপুরে হারবাং পহরচাঁদা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঘটনার ছবি প্রকাশের পর এটি শনিবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে প্রকাশ পায়। মা ও মেয়ে চকরিয়া হাসপাতালে বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

তাদের শারীরিক অবস্থা খুবই দুর্বল বলে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের চিকিৎসকরা।

চকরিয়া থানার হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ও পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম জানান, শুক্রবার স্থানীয়দের মাধ্যমে তারা খবরটি শোনেন। এরপর দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছে মা-মেয়েকে উদ্ধার করেন। পরে তাদের চিকিৎসার ব্যবস্থা করে পুলিশ।

স্থানীয়রা জানিয়েছে, হারবাং ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলামের নির্দেশে এ ঘটনা ঘটিয়েছে তার অনুসারী লোকজন। অপরদিকে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন নাম প্রকাশ না করার শর্তে জানিয়েছেন, একদফা মা-মেয়ের ওপর নির্যাতন চলার পর হারবাং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম চৌকিদার (গ্রাম পুলিশ) পাঠিয়ে তাদেরকে রশিতে বেঁধে তার কার্যালয়ে এনে আবার নির্মমভাবে নির্যাতন করেন। উপর্যুপরি নির্যাতন শেষে চেয়ারম্যানের লোকেরাই তদন্তকেন্দ্রে ফোন করে মা-মেয়েকে মুমূর্ষু অবস্থায় পুলিশের হাতে তুলে দেন।

এ ব্যাপারে জানার জন্য চেয়ারম্যানের নাম্বারে কল করে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি। তবে হারবাং পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ও পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম আরো জানিয়েছেন, মা-মেয়েকে পেটানোর বিষয়ে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি। তবে স্থানীয় এক ব্যক্তির গরু চুরির ঘটনায় মা-মেয়েকে অভিযুক্ত করা হয়েছে। অভিযুক্তদের মধ্যে মা-মেয়েসহ চারজনের বাড়ি পটিয়ার শান্তিরহাটে। অপরজনের বাড়ি পেকুয়ার লালব্রিজ এলাকায়।

চকরিয়া থানার ওসি মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ঘটনা জানার পর থেকে পুলিশ তৎপর রয়েছে। অভিযোগ পেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।সূত্র: মানবজমিন

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD