শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৯:১০ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
সব স্কুল-কলেজ খুলছে ৩০ মার্চ: শিক্ষামন্ত্রী হাকালুকি হাওরে এবার দেখা মিলেছে ৪৬ প্রজাতির পাখি রেমিট্যান্স যোদ্ধা প্রবাসীরা বিদেশের মাটিতে স্বদেশের প্রতিনিধিত্ব করেন – ডা.শিপলু জুড়ীতে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা কোম্পানীগঞ্জে সালিশ বৈঠকে ছুরিকাঘাতে বিচারী নিহত, আটক ১ বড় ভাইয়ের প্রেমের বলি ছোট ভাই! অচিরেই মৌলভীবাজারে বিশ্ববিদ্যালয় ও মেডিকেল কলেজ প্রতিষ্ঠা হবে – সংসদ সদস্য নেছার আহমদ সিলেটে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় বৃদ্ধ মহিলা পাওয়া গেছে আজকের বাংলাদেশ এক বদলে যাওয়া বাংলাদেশ: প্রধানমন্ত্রী সবাই ফোনে ছবি তুলছে, কেউ সাহায্য করতে আসছে না নিবেদিত প্রাণ অভিমানী হয় কখনো বেইমান হয় না হিন্দু যুব পরিষদের সুনামগঞ্জ জেলা কমিটি গঠন যুক্তরাষ্ট্রে ফের চালু হল গ্রিন কার্ড সৌদিতে লিফট ছিঁড়ে সিলেটী যুবকের মর্মান্তিক মৃত্যু লেখক মুশতাকের মৃত্যু: গাজীপুর জেলা প্রশাসনের তদন্ত কমিটি
cloudservicebd.com

প্রবীণ শিক্ষক সত্যেন্দ্র সরকার স্যারের ২য় মৃত্যুবার্ষিকীতে বিনম্র শ্রদ্ধা ও স্মৃতিচারণ

20200822 202109 - BD Sylhet News

তাহমীদ ইশাদ রিপন:: মৌলভীবাজার জেলার বড়লেখা উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ পি.সি.মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞানের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আমার প্রিয় শ্রদ্ধাভাজন স্যার “সত্যেন্দ্র সরকার” স্যার ২২ আগস্ট ১৮ ইং সকাল ৭:০০ ঘটিকার সময় পরালোকগমণ করেন।

৬’ষ্ঠ শ্রেনী থেকে ১০’ম শ্রেণী পর্যন্ত যার কাছ থেকে পেয়েছি সু-শিক্ষা, স্নেহ, ভালোবাসা।বিজ্ঞান সাবজেক্ট’টা আমি’সহ আমার কজন বন্ধুদের কাছে ছিলো কঠিন থেকে কঠিনতর কিন্তু প্রিয় স্যারের সান্নিধ্যে থেকে বিজ্ঞান বিষয়টা আমরা অনেকটাই রপ্ত করতে পেরেছিলাম। ক্লাসে বিজ্ঞান বিষয়টা নিয়ে স্যারের নির্ধারিত সময়ের পরেও আরও অতিরিক্ত সময় নিয়েও প্রতিদিন আমাদেরকে চিত্র সহ বিজ্ঞানের বিভিন্ন বিষয়ের উপর আলোচনা করতেন। বিজ্ঞান বিষয়টা কঠিন হলেও স্যারের পাঠদান থেকে আমরা সহযেই বুঝে নিতে পারতাম। আমাদের জন্য স্যারের অনেক পরিশ্রম করতে হতো। স্কুল ছুটি হওয়ার পরও স্যার আমাদের জন্য বসে থাকতেন। মাঝে-মধ্যে স্যারের উপরে খুব বেশী অভিমান হতো আমাদের কারণ স্কুল ছুটি পরেই আর স্যারের পাশে বসে থেকাটা বিরক্তিকর লাগতো কারণ তখন খেলাধুলা’র প্রতি মগ্ন ছিলাম সবাই।

স্যার একটি কথা সব-সময় বলতেনঃ- “এখনই সময় তোমাদের শিক্ষা অর্জন করার কারণ এখন তোমাদের মস্তিষ্ক পরিষ্কার আর এই মস্তিষ্কে তুমরা যা গ্রহন করবে তা সাড়াজীবন বহাল থাকবে তাই হেলাফেলা না করে মস্তিষ্ক’টাকে কাজে লাগাও, না হলে একদিন পস্থাতে হবে”। আজও সেই কথাগুলো কানে বাজে, আজও পি.সি. উচ্চ বিদ্যালয়ের উত্তরের ক্লাস রুমের কথা মনে পড়ছে যেখানে স্কুল ছুটি পরেও আরও ২০ মিনিটের জন্য বিজ্ঞান বিষয় নিয়ে স্যার আলোচনা করতেন।

স্যারের পরিশ্রম বৃথা যায়নি আজ স্যারের প্রিয় স্নেহভাজন ছাত্র’রা বিজ্ঞান বিভাগে সফলতা অর্জন করেছে। আমার বন্ধুদের মধ্যে যে কজন বিজ্ঞান বিভাগ নিয়ে সফলতা অর্জন করেছে তাদের মধ্যে আমার প্রিয় বন্ধু মারুফ কামরান চৌধুরী, মিটু কুমার দেব নাথ, স্বপন কুমার দাস, সাহেদ আহমদ।

আমার যতোটুক মনে পড়ছে প্রিয় স্যার’ক নিয়ে স্মৃতিচারণ করতে হলে অনেক সময়ের ব্যাপার তারপরও স্যারের যে কথাগুলো মনে পড়ে সবসময় সেই কথাগুলো কিছুটা হলেও লেখার চেষ্টা করেছি।

স্যার আজ চলে গেলেন না ফেরার দেশে কিন্তু আমরা স্যারের এমন স্বার্থপর ছাত্র ছিলাম স্যার অসুস্থ থাকা অবস্থায় আমরা কেউ একটু সময়ের জন্য হলেও স্যার’কে দেখার সুযোগ হয়নি, অথচ এই স্যারের কাছ থেকে আমাদের মৌলিক বিজ্ঞানের হাতেখড়ি।

স্যার পারলে আপনার স্বার্থপর ছাত্রদের ক্ষমা করবেন, আমরা শুধু আপনার কাছ থেকে শিক্ষা গ্রহন করেছি কিন্তু সময়ের ব্যবধানে সেই শিক্ষাকে সু-শিক্ষায় পরিণত করতে পারিনি।

সৃষ্টিকর্তা’র কাছে প্রার্থনা করি আপনি যেখানেই থাকেন তিনি যেনো আপনাকে ভালো রাখেন।

লেখক:- তাহমীদ ইশাদ রিপন, লেখক ও সংঘটক।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৭ - ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD