রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ০২:১৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
বড়লেখায় বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে নিসচার মাসব্যাপী কর্মসূচির সমাপ্তি সিলেটের গোলাপগঞ্জের বাঘা থেকে দুই শিশু নিখোঁজ, সন্ধান কামনা কানাইঘাটে লামাঝিংগাবাড়ী মাদরাসার সুপার মরহুম আব্দুল মতিন(র.) স্মরণে শোক সভা পীর হাবিবের বাসায় হামলার প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন বড়লেখায় রতুলী বাজার পরিবহন শ্রমিকদের সাথে নিসচার মতবিনিময় ও ক্যাম্পেইন কমিউনিটি পুলিশের সেবা এখন গ্রামে-গঞ্জে পৌছে গেছে: মন্ত্রী ইমরান সিলেটে অবস্থানরত ছাতকের নাগরিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত খাদিমপাড়ায় রাস্তা নিয়ে সংঘর্ষ : ৫জন গুরুতর সিলেটে স্বামীর নির্যাতনে মৃত্যুর সাথে পাজ্ঞা লড়ছেন অন্তসত্ত্বা গৃহবধু ছাতক হবে সিমেন্টের শহর- মুহিবুর রহমান মানিক এমপি ফ্রান্সে নবী (স.) কে অবমাননার প্রতিবাদে খাদিমনগরে তৌহিদী জনতার মিছিল ও সমাবেশ সিলেটের মেজরটিলা থেকে অস্ত্রসহ দূর্ধর্ষ সন্ত্রাসী আনছার গ্রেফতার বিয়ানীবাজার পৌরসভায় নতুন রোড রোলার বরাদ্দ,মেয়র শুকুরের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ ছাতকে ১ম মিনি ম্যারাথন অনুষ্টিত মহনবী সাঃ এ-র অবমাননার প্রতিবাদে বড়লেখায় মুসলিম তৌহিদী জনতার বিক্ষোভ মিছিল
cloudservicebd.com

‘মেকানিকের ভুলে’ মোটরসাইকেলে সেই গ্রাইন্ডিং মেশিন!

20200822 205151 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ ডেস্ক::সিলেট নগরীর চৌহাট্টায় পুলিশের মোটরসাইকেল থেকে বোমা সদৃশ বস্তু হিসেবে উদ্ধার হওয়া আলোচিত সেই ‘গ্রাইন্ডিং মেশিন’ মেকানিকের ভুলে রয়ে গিয়েছিল বলে জানিয়েছে সিলেট মহানগর পুলিশ।

দেশব্যাপী আলোচিত সেই ঘটনার প্রায় ১৫ দিন পর এ বিষয়ে ঘটিত তদন্ত কমিটি গ্রাইন্ডিং মেশিনের রহস্য উন্মোচন করেছে বলেও দাবি মহানগর পুলিশের।

বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) জ্যোতির্ময় সরকার পিপিএম। তবে গ্রাইন্ডিং মেশিনকাণ্ডে সার্জেন্ট চয়ন নাইডুর বহিষ্কারাদেশ উঠছে না বলেও জানান।

শনিবার (২২ আগস্ট) বিকেল ৩ টায় পুলিশের এ কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে বলেন, ঘটনার দিন অর্থ্যাৎ ৫ আগস্ট বেলা ২ টার দিকে ডিউটিতে যাওয়ার আগে মোটরসাইকেলটি কাজ করার জন্য কুমারপাড়ার কাছাকাছি এলাকার মুন্না ওয়ার্কশপে নিয়ে যান। তখন ওয়ার্কশপের কর্মীরা মোটরসাইকেলের কিছু যন্ত্রাংশ কেনা লাগবে বলে জানায়। এসময় আমাদের পুলিশ সদস্যর ডিউটির সময় হয়ে গেলে মোটরসাইকেলটি ওয়ার্কশপে রেখে যান।

পরে ওয়ার্কশপের কর্মীরা মোটরসাইকেলটি মেরামত করে ট্রায়াল দেন। এসময় ওয়ার্কশপের এক কর্মী ভুলবশত গ্রাইন্ডিং মেশিনটি মোটরসাইকেলে রেখে দেন। আর গ্রাইন্ডিং মেশিনটি নষ্ট হওয়ায় ওয়ার্কশপের কর্মীরা পরে আর খোঁজ নেননি। হয়তো অসাবধানতাবশত বা পুলিশের গাড়িকে নিজেদের গাড়ি মনে করে তারা ভুলে মেশিনটি রাখে। বাসা বা অন্য কোথাও নিয়ে যাওয়ার জন্য। তবে তাদের মধ্যে অন্য কোনো উদ্দেশ্য না থাকায় এ বিষয়ে কোনো মামলা হচ্ছে না বলেও জানান জ্যোতির্ময় সরকার।

পুলিশের এ কর্মকর্তা আরও জানান, ঘটনার পরপর সার্জেন্ট চয়ন নাইডু সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছিল। তবে গ্রাইন্ডিং মেশিনকাণ্ডের সমাধান হলেও চয়ন নাইডুর বহিষ্কারাদেশ উঠছে না বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, মূলত দায়িত্বে অবহেলার জন্য তাকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া সরকারি মোটরসাইকেল ব্যবহারের কিছু নিয়ম আছে। সব মিলিয়ে তার ব্যাপারে ডিপার্টমেন্ট সিদ্ধান্ত নিবে।

প্রসঙ্গত, বুধবার (৫ আগস্ট) সন্ধ্যার দিকে ট্রাফিক সার্জেন্ট চয়ন নাইডু তার মোটরসাইকেল চৌহাট্টা পয়েন্টে রেখে চা খেতে যান। তবে তিনি ফিরে গিয়ে মোটরসাইকেলে বোমাসদৃশ একটি বস্তু দেখতে পান। বিষয়টি থানায় অবহিত করলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা দ্রুত এসে ঘটনাস্থল ঘিরে রাখে।

এরপর বোমাসদৃশ ওই বস্তুটি উদ্ধারে দফায় দফায় মিটিংয়ে বসে আইনশৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনী। অবশেষে তারা ব্যর্থ হলে ঢাকা র‍্যাবের বোম ডিসপোজাল ইউনিট ডাকা হয়। ওইদিন রাত ৯ টার দিকে র‍্যাব-৯ সিলেটের একটি বোমা ডিসপোজাল টিম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। পরে পুলিশের কর্মকর্তা বিষয়টি ঢাকায় জানান।

তবে পরদিন বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) বিকেল পৌনে চারটার সেনাবাহিনীর ১৭ পদাতিক ডিভিশনের একটি বোম ডিসপোজাল টিম বোমাসদৃশ বস্তুটি মোটরসাইকেল থেকে খুলে ফেলে। এরপর সেনাবাহিনী প্রেস কনফারেন্সে এটিকে একটি গ্রাইন্ডিং মেশিন বলে নিশ্চিত করে।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৭ - ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD