রবিবার, ০১ নভেম্বর ২০২০, ১২:৩৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
বড়লেখায় বৃক্ষরোপণের মাধ্যমে নিসচার মাসব্যাপী কর্মসূচির সমাপ্তি সিলেটের গোলাপগঞ্জের বাঘা থেকে দুই শিশু নিখোঁজ, সন্ধান কামনা কানাইঘাটে লামাঝিংগাবাড়ী মাদরাসার সুপার মরহুম আব্দুল মতিন(র.) স্মরণে শোক সভা পীর হাবিবের বাসায় হামলার প্রতিবাদে সিলেটে মানববন্ধন বড়লেখায় রতুলী বাজার পরিবহন শ্রমিকদের সাথে নিসচার মতবিনিময় ও ক্যাম্পেইন কমিউনিটি পুলিশের সেবা এখন গ্রামে-গঞ্জে পৌছে গেছে: মন্ত্রী ইমরান সিলেটে অবস্থানরত ছাতকের নাগরিকদের মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত খাদিমপাড়ায় রাস্তা নিয়ে সংঘর্ষ : ৫জন গুরুতর সিলেটে স্বামীর নির্যাতনে মৃত্যুর সাথে পাজ্ঞা লড়ছেন অন্তসত্ত্বা গৃহবধু ছাতক হবে সিমেন্টের শহর- মুহিবুর রহমান মানিক এমপি ফ্রান্সে নবী (স.) কে অবমাননার প্রতিবাদে খাদিমনগরে তৌহিদী জনতার মিছিল ও সমাবেশ সিলেটের মেজরটিলা থেকে অস্ত্রসহ দূর্ধর্ষ সন্ত্রাসী আনছার গ্রেফতার বিয়ানীবাজার পৌরসভায় নতুন রোড রোলার বরাদ্দ,মেয়র শুকুরের কৃতজ্ঞতা প্রকাশ ছাতকে ১ম মিনি ম্যারাথন অনুষ্টিত মহনবী সাঃ এ-র অবমাননার প্রতিবাদে বড়লেখায় মুসলিম তৌহিদী জনতার বিক্ষোভ মিছিল
cloudservicebd.com

সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে নারী খুনের ঘটনায় ৩ আসামী গ্রেফতার

20200813 215312 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ ডটকম:: সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে মাইজগাঁও মোল্লাটিলা এলাকায় জুলেখা বেগম খুনের ঘটনায় জড়িত তিনজন কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।এর মধ্যে একজন অপ্রাপ্ত বয়স্ক রয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, কিশোরগঞ্জ জেলার,উত্তর শেখরনগর গ্রামের উসমান গনির ছেলে (বর্তমানে ফেঞ্চুগঞ্জে মোল্লাটিলাস্থ দেলোয়ার হোসেন এর গরুর খামারের কর্মচারী) রোকন ওরফে কালু (২০),
মৌলভীবাজার জেলার গাজীপুর গ্রামের সুকরাম ছেলে (বর্তমানে শরীফগঞ্জস্থ মোঃ সাইফুল ইসলাম ছোটন এর গরুর খামারের কর্মচারী) ইন্দ্র (২১), সিলেট জেলার মনিপুর গ্রামের মৃত সনজিত ভক্তা ওরফে বঙ্গই ছেলে (বর্তমানে পুরানগাঁওস্থ জহির মিয়ার গরুর খামারের কর্মচারী) উমন ভক্তা (১৪)

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জুলেখা বেগম (৪৫) স্বামী-মোঃ রেদোয়ান মিয়া সাং-বনমালিপুর পীরেরচ থানা-মোগলাবাজার এসএমপি সিলেট বর্তমান সাং-মাইজগাঁও মোল্লাটিলা (দেলোয়ার হোসেন এর ভাড়াটিয়া) থানা-ফেঞ্চুগঞ্জ জেলা-সিলেট তার স্বামীর সাথে ৪/৫ মাস পূর্বে বিবাহ বিচ্ছেদ ঘটে। তারপর হইতে জুলেখা বেগম বড় ছেলে মোঃ রুমান আহমদ ও ছোট ছেলে রুমেল আহমদকে নিয়া ফেঞ্চুগঞ্জ থানাধীন ২নং মাইজগাঁও ইউনিয়নের অন্তর্গত মাইজগাঁও মোল্লাটিলাস্থ দেলোয়ার হোসেন এর গরুর খামারের ভিতরে ভাড়াটিয়া টিনসেড ঘরে বসবাস করতেন। জুলেখা বেগমের উভয় ছেলে দীর্ঘদিন যাবৎ কাজকর্ম করিয়া একটি সিএনজি ক্রয়ের জন্য তাদের মা জুলেখা বেগমের নিকট টাকা জমা রাখতো। তিনি ভাড়াটিয়া ঘরে থাকা একটি টেবিলের ড্রয়ারে তাদের জমানো টাকা রাখতেন। গ্রেফতারকৃত রোকন ওরফে কালু (২০) পাশের বাড়ীর ভাড়াটিয়া টাকা জমানোর বিষয়টি জানতো। বুধবার ১২ আগস্ট সন্ধ্যা অনুমান ৭.০০ ঘটিকা হইতে ৭.৩০ ঘটিকার মধ্যবর্তী যে কোন সময় জুলেখা বেগমের ছোট ছেলে রুমেল আহমদ ভাড়াটিয়া বাড়ীতে গিয়ে দেখে আসবাবপত্র তছনছ করা এবং ঘরে থাকা কলস কাত হইয়া পানি পড়ছে তার মা ঘরে নাই। রুমেল ও রুমান তার মাকে আশপাশে খোঁজাখুজি করতে থাকে এবং নিকট আত্মীয় স্বজনদের সংবাদ দেয়। সংবাদ পেয়ে স্থানীয় লোকজনসহ এলাকার বিভিন্ন জায়গার খোঁজাখুজি করা অবস্থায় দেখতে পান যে, ফেঞ্চুগঞ্জ থানাধীন পুরানগাঁও সাকিনস্থ লন্ডন প্রবাসী মায়া বেগম এর বসতবাড়ীর উত্তর পার্শ্বে খোলা টয়লেটের রিংয়ের ট্যাংকির নিকটবর্তী স্থানে রক্ত এবং জুলেখা বেগমের লাশ টয়লেটের ট্যাংকির ভিতরে পড়ে আছে। তার পা দুইটি ট্যাংকিতে ভাসমান অবস্থায় দেখা যাচ্ছে। উক্ত বিষয়টি ফেঞ্চুগঞ্জ থানা পুলিশকে অবহিত করলে সিলেট জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন এর দিকনির্দেশনায় গোলাপগঞ্জ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রাশেদুল হক চৌধুরী এর তত্ত্বাবধানে ফেঞ্চুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আবুল বাসার মোহাম্মদ বদরুজ্জামান এবং পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ খালেদ চৌধুরী এর নেতৃত্বে আফিসার ও ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে স্থানীয় লোকজনদের সামনে জুলেখা বেগমের লাশ টয়লেটের ট্যাংকির ভিতর হতে উঠালে দেখা যায় তার গলায় গামছা প্যাঁচিয়ে তাহাকে শ্বাসরোদ্ধ করিয়া হত্যা করা হয়েছে। ফেঞ্চুগঞ্জ থানা পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য হাসপাতালে প্রেরন করে।পাশাপাশি পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম এর নির্দেশনায় হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন ও আসামী গ্রেফতারের থানা পুলিশের একাদিক টিম বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। বিভিন্ন পারিপাশ্বিক তথ্যের উপর ভিত্তি করে অভিযানের এক পর্যায়ে হত্যা কান্ডের সাথে জডিত উল্লেখিত তিনজন কে গ্রেফতার করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আসামীগণ হত্যার সাথে জড়িত থাকার বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। আগামীকাল আসামি তিন জনকে স্বীকারোক্তির জন্য কোর্টে প্রেরণ করা হবে।

এ বিষয় জানতে চাইলে জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও মিডিয়া) মো: লুৎফর রহমান বলেন ,ফেঞ্চুগঞ্জে এক মহিলা কে নৃশংসভাবে খুন করে দুর্বিত্তরা।এ ঘটনাটি পুলিশ সুপার মহোদয় ব্যক্তিগতভাবে তদারকি করছেন। ইতিমধ্যে তিন জন কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

বিডি সিলেট নিউজ ডটকম/ ১৩ আগস্ট ২০২০ইং/

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৭ - ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD