মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৬:০৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
ফ্রান্সে হযরত মোহাম্মদ (সাঃ) এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনে দৃষ্টতায় জাগো সিলেট আন্দোলনের প্রতিবাদ সভা ৫ নভেম্বরের মধ্যে খুনী আকবরকে গ্রেফতার না  করলে ব্যবসায়ীদের কঠোর কর্মসূচী দেশের ইতিহাসে প্রথম, তিন কার্যদিবসে হলো মামলার রায় সিলেট এসে পৌঁছেছেন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান মিশিগানে “খোকা থেকে মুক্তি সংগ্রামের নায়ক’’ বইয়ের মোড়ক উন্মোচন সিলেটে রোগী শ্লীলতাহানী,অভিযুক্ত চিকিৎসক কারাগারে রায়হান হত্যা: গ্রেপ্তার হতে পারেন পুলিশের আরো তিন সদস্য ধর্ষণ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে বিয়ানীবাজার উপজেলা ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল ছাতকে সাংবাদিক অলিউর রহমানের মাতৃবিয়োগ:শোক বড়লেখায় পূজামণ্ডপে নিসচা’র সচেতনতামূলক লিফলেট ও মাস্ক বিতরণ দেশে ফিরেছেন বিয়ানীবাজার পৌরসভার মেয়র, বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা বিদেশি মুসল্লিরা ১ নভেম্বর থেকে ওমরাহ পালনের সুযোগ পাচ্ছেন সোমবার দেশে ফিরছেন বিয়ানীবাজার পৌর মেয়র মো. আব্দুস শুকুর মাস্ক না পরলে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সেবা নয় সাংবাদিকতা যেন ‘নীতিহীন’ না হয় : প্রধানমন্ত্রী
cloudservicebd.com

ওসি প্রদীপসহ তিন আসামি রিমান্ডে, চারজনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি

20200806 212144 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ ডেস্ক:: অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলায় টেকনাফের সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাস, বাহারছরা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের প্রত্যাহারকৃত ইন্সপেক্টর লিয়াকত আলীসহ তিন আসামিকে ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

বাকি ৪ আসামিকে জেল গেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেয়া হয়েছে।বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আবেদন করে র‌্যাব।দীর্ঘ শুনানি শেষে ৭ দিন মঞ্জুর করেন টেকনাফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত (আদালত নম্বর-৩) এর বিচারক সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুহাং হেলাল উদ্দিন।

বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় আদালত প্রাঙ্গণে বাদীপক্ষের প্রধান আইনজীবী মোহাম্মদ মোস্তফা সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান।তিনি জানান,আসামিদের ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে আদালতের বিচারক তিনজনের সাত দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেছেন।তারা হলেন, ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, প্রধান আসামি লিয়াকত আলী ও এসআই নন্দলাল রক্ষিত।

বাকিদের জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি দেয়া হয়েছে।   এর আগে একই আদালতের বিচারক মুহাং হেলাল উদ্দিন ৭ আসামির জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

আসামিরা হলেন- (১) টেকনাফের সাবেক ওসি  প্রদীপ কুমার দাশ (২) বাহারছরা শামলাপুর পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের প্রত্যাহারকৃত পরিদর্শক লিয়াকত আলী (৩) এসআই নন্দলাল রক্ষিত (৪) কনস্টেবল  সাফানুর করিম (৫) কনস্টেবল কামাল হোসেন (৬) কনস্টেবল আবদুল্লাহ আল মামুন ও (৭) এএসআই লিটন মিয়া।

করোনাকালীন হাইকোর্টের নির্দেশনা অনুযায়ী, প্রথম দফায় ৪ জন ও দ্বিতীয় দফায় ৩ জন আসামিকে হাজত খানা থেকে কাঠগড়ায় আনা হয়। মামলার বাকি দুইজন আসামি আত্মসমর্পণ করেননি। তবে আসামিপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট মোহাম্মদ জাকারিয়া বলেছেন, মামলায় উল্লেখিত ৮নম্বর আসামি এসআই টুটুল এবং ৯ নম্বর আসামি কনস্টেবল মোস্তফা নামে কোন পুলিশ সদস্য জেলা পুলিশে নেই।

আসামিদের পক্ষে আদালতে এডভোকেট মোহাম্মদ জাকারিয়া ও এডভোকেট রাখাল চন্দ্র মিত্র জামিন আবেদন শুনানি করেন।পিপি এডভোকেট ফরিদুল আলম,এপিপি এডভোকেট সাঈদ হোসাইন রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে অংশ নেন।সূত্র:-বিডি প্রতিদিন

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৭ - ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD