মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৩:৪০ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
মুহিত চৌধুরীর শারিরীক অবস্থার অবনতি: ফের আইসিইউতে স্থানান্তর বড়লেখায় নিসচা’র যুব বিষয়ক সম্পাদক মুহাম্মদ বদরুল ইসলামের স্বেচ্ছায় রক্তদান জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী আজ ২০৩০ সালে রমজান মাস হবে দুইটি উন্নয়নের গতিধারাকে অব্যাহত রাখা হবে; পরিবেশ মন্ত্রী সিলেট নগরীর চারাদিঘীরপাড়ে দু’টি খণ্ডিত পা উদ্ধার টুম্পা দেবীর ‘কালার প্রেমে এত জ্বালা’ গানে মুগ্ধ শ্রোতা সিলেটে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ১৪২, মৃত্যু ২ করোনায় তারাবির রাকাত সংখ্যা কমল মক্কা ও মদিনায় যুক্তরাষ্ট্রে তিন সন্তানকে গলা কেটে হত্যা করল মা লকডাউন ঘোষণা : সব অফিস-গণপরিবহন বন্ধ, শিল্প-কারখানা খোলা জনগনের কাছে দায়বদ্ধ এমন নেতা মনোনীত করতে হবে-এডভোকেট আব্দুর রকিব মন্টু মধ্যপ্রাচ্যে চাঁদ দেখা যায়নি, সৌদিতে রোজা শুরু মঙ্গলবার এক সপ্তাহের জন্য সব ফ্লাইট বন্ধের সিদ্ধান্ত মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার
cloudservicebd.com

প্যানেল নিয়ম প্রবর্তনের ব্যাপারে সুপারিশ করলেন এমপি নাহিদ

20200729 022126 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ ডেস্ক :: চলমান চরম শিক্ষক সংকট দূর করতে শূন্যপদ পূরনের ভিত্তিতে প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৮ প্যানেলে নিয়োগের ব্যাপারে ডিও লেটারের মাধ্যমে সুপারিশ করেছেন সাবেক শিক্ষামন্ত্রী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য, সিলেট-৬ এর সাংসদ নুরুল ইসলাম নাহিদ।

প্রধানমন্ত্রী ভিশন-২১ এর আওতায় ২০২১ সালের মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষার হার শতকরা ১০০ ভাগ উন্নীত করার অঙ্গীকার করেছেন। এ অঙ্গীকারের প্রধান অন্তরায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের ঝড়ে পড়া। এ সমস্যা সমাধানে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় পদক্ষেপ গ্রহণ করলেও একটি সমস্যা থেকেই যাচ্ছে, তা হলো প্রাথমিকে শিক্ষক সংকট।রাজস্বখাত ভুক্ত প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা ২০১৮ এ চূড়ান্ত ভাবে নির্বাচিত ১৮,১৪৭ জন শিক্ষককে সারাদেশের প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলোতে পদায়ন করা হয়। তারপরও শিক্ষক সংকট দূর হচ্ছে না। ২০১৮ সালের প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় সিলেট-৬ এ কিছু শিক্ষককে পদায়ন করার পরও বেশ কিছু শূন্যপদ খালি রয়ে গেছে। করোনা পরবর্তী শিক্ষার ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার জন্য, শিক্ষক সংকট দূরীকরণ এবং শিক্ষার গতি ত্বরান্বিত করা অত্যন্ত জরুরী হয়ে পড়েছে। সম্প্রতি লক্ষাধিক পদে প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগের ব্যাপারে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। এই শূন্যপদ গুলো নতুন নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পূরণ করা বেশ সময় সাপেক্ষ ও কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

দেখা যাচ্ছে একটি নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করার পরও পূর্বের চাইতে বেশি শূণ্যপদ থেকে যাচ্ছে। যার কারণে শিক্ষক সংকট দূর হচ্ছে না ।তাই মাননীয় সাংসদ ও সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ প্রাথমিকে চলমান শিক্ষক সংকট নিরসনে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ চূড়ান্ত ভাবে সুপারিশ প্রাপ্ত না হওয়া ৩৭ হাজার মেধাবী পরীক্ষার্থীদের প্যানেলে নিয়োগের ব্যাপারে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সুপারিশ করেন।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD