সোমবার, ১৬ মে ২০২২, ০৫:৫৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
হবিগঞ্জে ট্রাক-ধান কাটার মেশিনের সংঘর্ষে যুবক নিহত আসছে বর্ষা, সিলেটে ঝুঁকি নিয়ে টিলায় বসবাস শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে সিলেট জেলা আ.লীগের কর্মসূচী ঘোষণা জগন্নাথপুরে ৩ দিন ধরে ফেরি চলাচল বন্ধ, চরম দুর্ভোগে যাত্রীরা জাপানি দুই শিশু: বাবার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার আবেদন সিলেটে একদিনে সড়ক দূর্ঘটনায় ৪ জন নিহত আইসিইউতে ভর্তি বিএনপি নেতা মঈন খান পুকুরে টাকা ডুবলেই ‘স্বপ্ন পূরণ পানির নিচে খাদেমের কারসাজি’ সিলেট নগরীতে ট্রাকচাপায় মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু সিলেটে কুড়িয়ে পাওয়া শিশু উর্মির অভিভাবকের সন্ধান চায় পুলিশ বিশ্বকাপ ট্রফি ৫১ দেশের উদ্দেশে যাত্রা শুরু ‘এখানে কিছু টাকা আছে, এটা দিয়ে আমার দাফন-কাফন করিও’ সিলেটে পাহাড়ি ঢলে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত, দুর্ভোগে মানুষ সিলেটে গাঁজাসহ মাদক কারবারি আটক বড়লেখায় বর্হিবিশ্ব জাতীয়তাবাদী ফাউন্ডেশন নেতৃবৃন্দদের সংবর্ধনা প্রদান




সন্তানকে গলাকেটে হত্যা চেষ্টার অভিযোগে আটক পিতা কারাগারে

Screenshot 20220320 111205 Gallery - BD Sylhet News




হবিগঞ্জ প্রতিনিধি:: হবিগঞ্জ শহরের কামড়াপুরে শিশুকে গলাকেটে হত্যার চেষ্টার অভিযোগে পাষন্ড পিতাকে কারাগারে প্রেরণ করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার বিকেলে পুলিশ বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে তাকে কোর্টে প্রেরণ করে। সেই সাথে সদর থানার ওসি মাসুক আলীর মানবতার সেবায় ওই শিশুটি সুস্থ হয়ে উঠেছে। গতকাল সরেজমিনে হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায়, মায়ের কোলে সু¯’ হয়ে বসে আছে। প্রসঙ্গত, আজমিরীগঞ্জ উপজেলার পশ্চিমবাগ গ্রামের সেকুল মিয়ার পুত্র রফিকুল ইসলাম রফিক (৩০) এর সাথে বিয়ে হয় নবীগঞ্জ উপজেলার রতনপুর গ্রামের রতœা আক্তারের। এক পর্যায়ে তাদের কোলজুড়ে দুইটি পুত্র ও একটি কন্যা সন্তান জন্মগ্রহণ করে। রফিক মাদকাসক্ত ও চোরপ্রকৃতির লোক। সে প্রায়ই মাদক সেবন করে স্ত্রী সন্তানের ওপর অত্যাচার চালাতো। স্ত্রী নির্যাতনের পরও সংসার করতো। গত শুক্রবার ওই সময় কামড়াপুর ভাড়াটিয়া বাসায় নেশার টাকার জন্য রফিক তার স্ত্রীর ওপর ক্ষুব্দ হয়ে ৪ বছরের কন্যা সন্তান রাহিদাকে ব্লেড দিয়ে গলা কেটে হত্যার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে স্থানীয় লোকজন এসে ওই শিশুকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। খবরটি ওসির নিকট পৌঁছলে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে রফিককে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। এদিকে ওই শিশুর অবস্থা আশংকাজনক বিধায় তাকে আংশিক চিকিৎসা দিয়ে সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার সিলেট প্রেরণ করেন। কিন্তু ওই শিশুর মা দরিদ্র পরিবারের হওয়ায় তাকে সিলেট নিয়ে যাওয়ায় সম্ভব না এ আক্ষেপ নিয়ে হাসপাতালে বসে কাঁদতে থাকলে এ প্রতিনিধি তাকে সদর থানার ওসির কাছে নিয়ে যান। এক পর্যায়ে ওই শিশুর অবস্থা দেখে তিনিসহ অন্যান্য পুলিশ সদর হাসপাতালে এসে আবাসিক মেডিকেল অফিসারের সাথে কথা বলে হাসপাতালে রাখেন এবং শনিবার ওসি মাসুক আলীর উদ্যোগে সার্জারী বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দিয়ে শিশুটির অপারেশন করানো হয়। ডাক্তার জানান, সময় মতো অপারেশন করার কারণে শিশুটি অল্পতে রক্ষা পেয়েছে। সে বর্তমানে বিপদমুক্ত। শিশুর মা ও অন্যান্য স্বজনরা বলেন, সদর থানার ওসি মাসুক আলী মানবতার সেবায় এগিয়ে আসায় শিশুটি বেঁেচ গেলো।

ওসি মাসুক আলী জানান, রফিক তার শিশু সন্তানকে গলাকেটে হত্যা করতে চেয়েছিল। কিন্তু অল্পের জন্য সে বেঁচে পেয়েছে। রফিককে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD