বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০১:২৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
সিলেটে ভয়াবহ রুপে বন্যা, পানিবন্দি লক্ষাধিক মানুষ চীনের সেই বিমান দুর্ঘটনা ছিল ইচ্ছাকৃত : ব্ল্যাক বক্সে ভয়ঙ্কর তথ্য মেয়র লুৎফুরের বক্তব্য ভাইরাল বিয়ানীবাজারীদের নিয়ে (ভিডিও) সুনামগঞ্জে দুই শতাধিক স্কুল প্লাবিত কালিঘাটে শত শত দোকান পানিতে নিমজ্জিত, ক্ষয়ক্ষতি কয়েক কোটি টাকা সম্রাটের জামিন বাতিল সিলেটের অর্ধেক এলাকায় পানিবন্দি লাখ লাখ মানুষ ডলারের দাম ১০০ ছাড়ালো চুনারুঘাটে উদ্বোধনের আগেই ভাঙছে কোটি টাকার ব্রীজ! শায়েস্তাগঞ্জে গরুর পঁচা মাংস বিক্রি : জরিমানা সিলেটকে বন্যা দুর্গত এলাকা ঘোষণা করুন: সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাব হবিগঞ্জে ভারতে প্রবেশকালে ৪ বাংলাদেশি আটক ইসলামী বক্তা এনায়েত উল্লাহ আব্বাসীর বিরুদ্ধে মামলা আমি ব্ল্যাকমেলিংয়ের শিকার হয়েছিলাম: চিত্রনায়িকা রত্না পুলিশ সদস্যের বিচ্ছিন্ন কবজি জোড়া লাগালেন ডা. সাজেদুর




সিলেটবাসীর প্রতি সাবেক অর্থমন্ত্রীর কৃতজ্ঞতা

985458745 - BD Sylhet News




বিডি সিলেট ডেস্ক:: সিলেটের সর্বস্তরের জনগণের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, সিলেট-১ আসনের সাবেক সংসদ ও বাংলাদেশ সরকারের সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

চারদিনের সফর শেষে শুক্রবার সিলেট ত্যাগকালে এক বিবৃতিতে সাবেক অর্থমন্ত্রী বলেন- প্রায় দুই বছর পর গত ১৪ মার্চ আমি সিলেটে আসি। এর ঠিক দুই বছর আগে ২০২০ সালে জাতির পিতা জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আমি সিলেটে এসেছিলাম। মাঝখানে দুটি বছর মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে আমি সিলেটে আসতে পারিনি। আমি নিজেও এই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলাম। যাই হোক দুই বছর পর এবারো জাতির পিতার জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে সিলেটে থাকতে পেরে এবং সিলেটের আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ ও আমার দুই নাতনীকে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের কেক কাটতে পেরে এবং শিশুদের নিয়ে জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন করতে পেরে আমি খুবই আনন্দিত।

একই সাথে, ১৪ মার্চ রাতে সিলেটে পৌঁছার পর থেকে গত চারদিন সিলেট আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ, সিটি কর্পোরেশন, সামাজিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সর্বোপরি সিলেটের সকল স্তরের জনগণ আমার প্রতি যে ভালোবাসা, সম্মান দেখিয়েছেন এরজন্য আমি আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞ। ৮৮ বছর বয়সে এসে জন্মভূমিতে এমন সম্মান পাওয়া সত্যিই ভাগ্যের ব্যাপার।

দীর্ঘদিন ধরেই সিলেটে আসার জন্য আমার খুব ইচ্ছা হচ্ছিল। প্রায়ই আমার ছেলে শাহেদকে বলতাম আমাকে সিলেটে নিয়ে যাওয়ার জন্য। কিন্তু চিকিৎসকদের অনুমতি না থাকায় আসা হয়নি। গত ৫ মার্চ রুটিন চেকআপের জন্য আমাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ছয়দিন হাসপাতালে থাকার পর গত ১১ মার্চ বাসায় ফিরেই আমি সিলেটে আসার জন্য আমার ছেলেকে বলি। পরে সে ১৪ মার্চ আমাকে সিলেটে নিয়ে আসে।

দুইবছর পর সিলেটে এসে দেখলাম এই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও সিলেটে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে এবং প্রচুর উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চলমান রয়েছে। এজন্য আমি বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

এই চারদিনে সিলেটের অনেক প্রিয়জনের সাথেই দেখা হয়েছে, আবার অনেকের সাথেই দেখা করার সুযোগ হয়নি। ইনশাআল্লাহ খুব শিগগিরই আবার সিলেটে আসব, দেখা হবে, কথা হবে সকলের সাথে। আপনাদের জন্য দোয়া রইল। আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন।

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD