বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ১২:৪৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
চীনের সেই বিমান দুর্ঘটনা ছিল ইচ্ছাকৃত : ব্ল্যাক বক্সে ভয়ঙ্কর তথ্য মেয়র লুৎফুরের বক্তব্য ভাইরাল বিয়ানীবাজারীদের নিয়ে (ভিডিও) সুনামগঞ্জে দুই শতাধিক স্কুল প্লাবিত কালিঘাটে শত শত দোকান পানিতে নিমজ্জিত, ক্ষয়ক্ষতি কয়েক কোটি টাকা সম্রাটের জামিন বাতিল সিলেটের অর্ধেক এলাকায় পানিবন্দি লাখ লাখ মানুষ ডলারের দাম ১০০ ছাড়ালো চুনারুঘাটে উদ্বোধনের আগেই ভাঙছে কোটি টাকার ব্রীজ! শায়েস্তাগঞ্জে গরুর পঁচা মাংস বিক্রি : জরিমানা সিলেটকে বন্যা দুর্গত এলাকা ঘোষণা করুন: সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাব হবিগঞ্জে ভারতে প্রবেশকালে ৪ বাংলাদেশি আটক ইসলামী বক্তা এনায়েত উল্লাহ আব্বাসীর বিরুদ্ধে মামলা আমি ব্ল্যাকমেলিংয়ের শিকার হয়েছিলাম: চিত্রনায়িকা রত্না পুলিশ সদস্যের বিচ্ছিন্ন কবজি জোড়া লাগালেন ডা. সাজেদুর বন্যার পানিতে ভাসছে সিলেটের অভিজাত এলাকা শাহজালাল উপশহর




এক বন্ধুকে বাঁচাতে গিয়ে ডুবে মরলো দুই বন্ধু

Screenshot 20220318 160313 Facebook - BD Sylhet News




বিডি সিলেট ডেস্ক:: রাজশাহীতে পদ্মা নদীতে গোসল করতে গিয়ে পানিতে তলিয়ে যায় এক কিশোর। তাকে বাঁচাতে নদীতে লাফ দেয় আরও দুই বন্ধু। এতে তলিয়ে যাওয়া কিশোর বেঁচে গেলেও মারা যায় ওই দুই বন্ধু। শুক্রবার (১৮ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরীর বড়কুঠি এলাকার পদ্মা নদীতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মৃতরা হলো-রাজশাহীর বড়কুঠি এলাকার সারিকের ছেলে নিরব (১৫) ও একই এলাকার সায়েদের ছেলে শাহিন (১৬)।

নিরব নগরীর লোকনাথ স্কুলে ও শাহিন শিক্ষাবোর্ড মডেল স্কুলের পড়তো। তারা দুজনই অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল বলে জানিয়েছেন তার স্বজনেরা।

স্থানীয়রা জানান, নগরীর বড়কুঠির তীরবর্তী পদ্মা নদীতে গোসল করতে নামে সাজেদ, নিরব, শাহিলসহ আরও ৮ থেকে ১০ জন বন্ধু। এদের মধ্যে সাজেদ নদীর গভীরে গেলে তলিয়ে যেতে থাকে। তাকে তলিয়ে যেতে দেখে উদ্ধার করতে নামে নিরব ও শাহিল। তারা সাজেদকে উদ্ধার করতে পারলেও পরে নিজেরা ডুবে যায়। সঙ্গে থাকা অন্যান্যরা পরে তাদের খুঁজে পায়নি।

কিশোররা উঠে এসে স্থানীয়দের জানালে তারা ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেন। পরে রাজশাহী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের ডুবুরিরা নদী থেকে ওই দুই কিশোরকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে যান। ততক্ষণে তারা মারা যায়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘ঘটনা শুনেছি। তবে এ বিষয়ে পরিবার থেকে এখনো কোনো অভিযোগ পাইনি। ঘটনাটির তদন্ত চলছে।’

শেয়ার করুন...











বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২২
Design & Developed BY Cloud Service BD