সোমবার, ১২ এপ্রিল ২০২১, ১০:৪১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
জনগনের কাছে দায়বদ্ধ এমন নেতা মনোনীত করতে হবে-এডভোকেট আব্দুর রকিব মন্টু মধ্যপ্রাচ্যে চাঁদ দেখা যায়নি, সৌদিতে রোজা শুরু মঙ্গলবার এক সপ্তাহের জন্য সব ফ্লাইট বন্ধের সিদ্ধান্ত মাধবকুণ্ড জলপ্রপাত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার বিয়ানীবাজারে মমরুজ খাঁ ফাউন্ডেশনে’র উদ্যোগে খাদ্য ও আর্থিক অনুদান বিতরণ ফেঞ্চুগঞ্জ সড়কে মোটর সাইকেল রাইডারকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার সিলেটে ৯৯৯-এ কল পেয়ে ভারতীয় পণ্য জব্দ, আটক ১ চান্দগ্রামে ১৩০ পরিবারকে রমজান ফুডপ্যাক উপহার দিলো বড়লেখা ফাউন্ডেশন ইউকে বড়লেখায় মানবসেবা সংস্থা’র উদ্যোগে রমজান সামগ্রী বিতরণ সাংবাদিক মুহিত চৌধুরীর সুস্থতা কামনায় সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের দোয়া মাহফিল সিলেটে আইসিইউর জন্য হাহাকার: ঠাঁই নেই হাসপাতালে রফিকুল ইসলাম মাদানীকে কাশিমপুর কারাগারে স্থানান্তর অসাধু ব্যাক্তি বিরুদ্ধে নগরীর মদিনা মার্কেট ব্যবসায়ীদের প্রতিবাদ সভা ও বিক্ষোভ মিছিল সাংবাদিক হাসান শাহরিয়ার আর নেই টিকার নেওয়ার ৫ দিনপর করোনাক্রান্ত হয়ে আ.লীগ নেতার মৃত্যু
cloudservicebd.com

সিলেট সিটি নির্বাচনের প্রথম দুই মেয়র প্রার্থী প্রাণ হারালেন করোনায়

মোঃ আবু জাবের,অতিথি প্রতিবেদক::সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের প্রথম প্রতিদ্বন্দ্বীতা কারী দুই মেয়র প্রার্থী বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ও এম.এ. হক এর প্রাণ কেঁড়েনিল করোনা ভাইরাস। বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ১৪ জুন রবিবার দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে ঢাকার সিএমএইচে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। ৩ জুলাই শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে সিলেটের নর্থ ইস্ট মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা যান এম.এ.হক। মারা যাওয়ার পরে তার রিপোর্টে করোনা পজিটিভ ধরা পড়ে।

২০০৩ সালে প্রথম সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হয়। সেই সময় আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী ছিলেন বদর উদ্দিন আহমদ কামরান ও বিএনপির মনোনীত মেয়র পদপ্রার্থী ছিলেন এম এ হক। তবে তখন দলীয় প্রতিক ছাড়া নির্বাচনে বদর উদ্দিন আহমদ কামরান আনারস প্রতীক নিয়ে ভোটে জয়লাভ করেছিলেন। তখন তার নিকটতম প্রতিন্দ্বন্দ্বী এম.এ.হক মাছ প্রতিক নিয়ে নির্বাচন করেছিলেন।

উলেখ্য, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান ব্রিটিশ শাসন আমল থেকেই চালু হয়ে আসছে। ১৮৬৭ সালে সিলেট মিউনিসিপ্যাল বোর্ড গঠিত হয়। মিউনিসিপ্যাল বোর্ডকে জেলা সদরে মিউনিসিপ্যাল কমিটি এবং মহকুমার সদরে টাউন কমিটি হিসেবে রুপান্তর করা হয়। পরবর্তিতে মিউনিসিপ্যাল কমিটি ও টাউন কমিটিকে বিলুপ্ত করে বাংলাদেশ আমলে তার নাম করণ করা হয় পৌরসভা। ২০০২ সালের ২৮ জুলাই সিলেট পৌরসভাকে সিটি কর্পোরেশনে উন্নীত করা হয়। বিলুপ্ত পৌরসভার প্রথম চেয়ারম্যান রায় বাহাদুর দুলাল চন্দ্র দেব। তিনি ১৮৮৩ সালে চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন। সিটি কর্পোরেশন ঘোষণার পর ২০০২ সালে ভারপ্রাপ্ত মেয়রের দ্বায়িত্ব পালন করেন বদর উদ্দিন আহমদ কামরান। এরপর ২০০৩ সালের ২০ মার্চ অনুষ্ঠিত নির্বাচনে নবগঠিত সিলেট সিটি কর্পোরেশনের প্রথম মেয়র নির্বাচিত হন বদর উদ্দিন আহমদ কামরান।

২০০২ সালে জাতীয় নির্বাচনে জয়লাভ করে ক্ষমতায় আসে বিএনপি। বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী হন সিলেটের কৃতি সন্তান মরহুম এম সাইফুর রহমান। সাইফুর রহমানের কাছে অত্যন্ত ঘনিষ্টজন ছিলেন বিএনপি নেতা এম.এ. হক। সে কারণে বিএনপিতে তাঁর অসামান্য অবদানের জন্য ২০০৩ সালে সিলেট সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় মনোনয়ন লাভ করেন তিনি। সেই নির্বাচনে সিলেট পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা আ.ফ.ম কামাল ও বিএনপির বর্তমান কেন্দ্রীয় সহ-স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট শামসুজ্জামান জামান নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় এম এ হক মেয়র পদে জয় লাভ করতে পারেননি বলে সিলেট বিএনপি নেতারা মন্তব্য করেছিলেন।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD