বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৪:৫৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
কোরআনের ৪ উপদেশেই মিলবে জীবনের সফলতা! অন্যায় করলে শেখ হাসিনা কঠিনভাবে অ্যাকশন নেন : পরিকল্পনামন্ত্রী সিলেটে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালিত আরব আমিরাতে চালু হচ্ছে রেলপথ মুরাদ বিদেশে যাবেন, না দেশে থাকবেন, সেটা তার ব্যাপার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুনামগঞ্জে চোখে টর্চলাইটের আলো ফেলা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫০ প্রতিটি ঘরে দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলুন : রাষ্ট্রপতি ছয় মাস ঢাকার রানওয়ে রাতে বন্ধ, জরুরি অবতরণ সিলেটে আবরার হত্যায় জড়িত মুন্নার পরিবার বিএনপির রাজনীতিতে জড়িত! কিডনি রোগীরা কী খাবেন না? জনতার হাতে আটক হত্যা মামলার আসামিকে প্রাণে বাঁচাল পুলিশ! হবিগঞ্জে চাচির হাতে আড়াই মাসের ভাতিজা খুন! এক প্রবাসী ফেসবুক লাইভে এসে আত্মহত্যা, দেশে স্ত্রীর পরকীয়া সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুনালে ঝুমন দাশের জামিন বহাল এইচএসসি পরিক্ষা: পঞ্চম দিনে অনুপস্থিত ৩৭১৮
cloudservicebd.com

অক্সিজেন খুলে দেওয়ায় রোগীর মৃত্যু: সেই ওয়ার্ডবয় গ্রেফতার

Screenshot 20211111 121847 Facebook - BD Sylhet News

বিডি সিলেট ডেস্কঃ

হাসপাতালের ওয়ার্ডবয় বকশিস চেয়েছিলেন ৫০০ টাকা। রোগীর দরিদ্র বাবা দিতে পেরেছিলেন ১৫০ টাকা।

এতেই খেপে গিয়ে রোগীর অক্সিজেনের নল খুলে দেন বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ার্ডবয় আসাদুল ইসলাম মীর ধলু। ফলে ঘটনাস্থলেই মারা যায় ১৮ বছরের স্কুলছাত্র বিকাশ চন্দ্র দাস।

এরপর অভিযুক্ত ওয়ার্ডবয় ধলু হাসপাতালের আনসারদের সহায়তায় ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান বলে অভিযোগ উঠে। তবে পালিয়ে তার শেষ রক্ষা হয়নি। গ্রেফতার হন র‌্যাবের হাতে।

বৃহস্পতিবার (১১ নভেম্বর) সকালে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক এএসপি আ ন ম ইমরান খান।

তিনি বলেন, ঘটনার পর ওয়ার্ডবয় ধলু পালিয়ে ঢাকায় চলে আসেন। এ ঘটনা চাঞ্চল্যকর ও আলোচিত হওয়ায় ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব। এরপর বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ধলুকে গ্রেফতার করা হয়।

এ বিষয়ে দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত জানানো হবে বলে জানান এএসপি ইমরান খান।

মৃতের চাচা শচীন চন্দ্র বলেন, তার ভাতিজা বিকাশ চন্দ্র মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হন। তাকে ওই হাসপাতালের সার্জারি বিভাগে নিয়ে গেলে ওয়ার্ডবয় দুলু ৫০০ টাকা দাবি করেন। কাছে টাকা না থাকায় বিকাশের বাবা বিশু দাস ১৫০ টাকা দিতে চান। কিন্তু ওয়ার্ড বয় ২০০ টাকা দাবি করেন। ৫০ টাকা তাৎক্ষণিক না পাওয়ায় ওয়ার্ডবয় রেগে গিয়ে টান দিয়ে অক্সিজেন মাস্ক খুলে দেন।

এর পরপরই বিকাশের শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। তখন তারা ওয়ার্ডবয়কে অক্সিজেন লাগিয়ে দেওয়ার অনুরোধ করেন কিন্তু ওয়ার্ডবয় দুলু ৫০ টাকা না দিলে লাগাবেন না বলে জানান। এরপর তারা নিজেরাই বিকাশের মুখে অক্সিজেন লাগিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু ততক্ষণে তার ভাতিজার নাক দিয়ে শ্লেষ্মা বের হওয়া শুরু করে।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD