বৃহস্পতিবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:১৩ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
স্বয়ংক্রিয়ভাবে মুছে যাবে হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাট কোরআনের ৪ উপদেশেই মিলবে জীবনের সফলতা! অন্যায় করলে শেখ হাসিনা কঠিনভাবে অ্যাকশন নেন : পরিকল্পনামন্ত্রী সিলেটে আন্তর্জাতিক দুর্নীতি বিরোধী দিবস পালিত আরব আমিরাতে চালু হচ্ছে রেলপথ মুরাদ বিদেশে যাবেন, না দেশে থাকবেন, সেটা তার ব্যাপার: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুনামগঞ্জে চোখে টর্চলাইটের আলো ফেলা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫০ প্রতিটি ঘরে দুর্নীতির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলুন : রাষ্ট্রপতি ছয় মাস ঢাকার রানওয়ে রাতে বন্ধ, জরুরি অবতরণ সিলেটে আবরার হত্যায় জড়িত মুন্নার পরিবার বিএনপির রাজনীতিতে জড়িত! কিডনি রোগীরা কী খাবেন না? জনতার হাতে আটক হত্যা মামলার আসামিকে প্রাণে বাঁচাল পুলিশ! হবিগঞ্জে চাচির হাতে আড়াই মাসের ভাতিজা খুন! এক প্রবাসী ফেসবুক লাইভে এসে আত্মহত্যা, দেশে স্ত্রীর পরকীয়া সিলেটের সাইবার ট্রাইব্যুনালে ঝুমন দাশের জামিন বহাল
cloudservicebd.com

‘ভেজালমুক্ত খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত হলে অভিযানও বন্ধ হবে’

food minister - BD Sylhet News

বিডি সিলেট ডেস্ক :: ভেজালমুক্ত খাদ্য সরবরাহ নিশ্চিত হলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানও বন্ধ হবে বলে জানিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। গতকাল মঙ্গলবার রাজধানীর একটি হোটেলে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ আয়োজিত সেমিনারে তিনি এ কথা বলেন।

হোটেল-রেস্তোরাঁয় বিভিন্ন সরকারি সংস্থা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে ব্যবসায়ীরা চরম ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে- হোটেল-রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির মহাসচিব ইমরান হোসেনের এ অভিযোগের জবাবে ওই কথা বলেন মন্ত্রী।

সাধন চন্দ্র মজুমদার আরও বলেন, ‘সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীদের সঙ্গে অনেকবার আলোচনা হয়েছে। এখন কেউ যদি জেনে-শুনে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাবার প্রস্তুত করেন তখন তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতেই হয়। তাদেরকে ছাড় দেওয়া যায় না।’

মন্ত্রী বলেন, ‘উৎপাদন থেকে শুরু করে প্রক্রিয়াজাত ও বাজারজাতকরণ, ভোক্তা পর্যায়ে নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে বিভিন্ন পর্যায়ে আলোচনা ও সচেতনতামূলক কর্মসূচি পরিচালিত হচ্ছে। আমাদের আইন রয়েছে। ১০টি বিধি-প্রবিধিমালা রয়েছে। কিন্তু সচেতনতার ঘাটতি রয়েছে। অনেকেই আছেন যারা আইন জেনেও ভেজাল ও অনিরাপদ খাদ্য সরবরাহ করছেন। তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

‘নিরাপদ খাদ্য আইন, ২০১৩ ও বিধি-প্রবিধি সর্ম্পকে অবহিতকরণ ও জনসচেতনতা সৃষ্টিতে গণমাধ্যম’ শীর্ষক সেমিনারের মূল প্রবন্ধে বলা হয়, সুস্থভাবে বেঁচে থাকার জন্য নিরাপদ খাদ্য অপরিহার্য। কারণ অনিরাপদ খাদ্য গ্রহণে ডায়রিয়া থেকে শুরু করে ক্যান্সার পর্যন্ত প্রায় ২০০ ধরনের রোগ হতে পারে। দেশের সব স্তরে খাদ্য নিরাপদ করতে এখন পর্যন্ত ১০টি বিধি-প্রবিধিমালা করেছে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ।

জাপানের জাইকার সহযোগিতায় নিরাপদ খাদ্য পরিবেশনের লক্ষ্যে একটি ল্যাবরেটরি স্থাপনে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে বলে জানান খাদ্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘দেশকে বাঁচাতে হবে, দেশের জনগণকে বাঁচাতে সবাইকে ভেজালমুক্ত ও নিরাপদ খাদ্য সরবরাহ ও গ্রহণের অঙ্গীকার করতে হবে। নিরাপদ খাবার নিশ্চিত হলেই একটি সুস্থ, সবল, কর্মঠ এবং মেধাবী জনগোষ্ঠী তৈরি করা সম্ভব।’

খাদ্যসচিব ড. মোছাম্মৎ নাজমানারা খানুম বলেন, ‘নিরাপদ খাদ্য নিশ্চেতে সচেতনতা বৃদ্ধি করতে দেশের ৪৯২টি উপজেলায় কর্মশালা পরিচালিত হচেছ। আমাদের জনবলের সংকট রয়েছে। তারপরও আমরা সর্বোচ্চ উদ্যোমে কাজ করে যাচ্ছি।’

সেমিনারে নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল কাইউম সরকার বলেন, ‘আমাদের মূল কাজ সব পর্যায়ে সচিতনতা বৃদ্ধি করা। পাশাপাশি ভেজাল ও অনিরাপদ খাদ্য পরিবেশনকারীদের সতর্ক করা। বারবার সতর্ক করার পরেও যদি অনিয়ম হয়, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইন প্রয়োগ করতে হয় আমাদের। আমাদের উদ্দেশ্য কাউকে শাস্তি কিংবা হেয় করা নয়। আমরা চাই সবাই নিরাপদ খাদ্যের বিষয়ে সচেতন ও সতর্ক থাকবেন। তাহলে আমাদের আইন প্রয়োগ করতে হবে না।’

কর্মশালার নিরাপদ খাদ্য আইন, বিধি-প্রবিধি সর্ম্পকে অবহিতকরণ ও জনসচেতনতা সৃষ্টিতে গণমাধ্যমের ভূমিকা নিয়ে আলোচনা করেন চ্যানেল আই’র পরিচালক ও বার্তা সম্পাদক শাইখ সিরাজ। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. ইকবাল রউফ মামুন।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD