শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ১১:২০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
মুসলিমদের সাথে ইফতারে ভার্চুয়ালি যোগ দিলেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী ট্রুডো লাখো মানুষের ভালোবাসায় চির নিদ্রায় শায়িত হলেন দিলদার হোসেন সেলিম ঈদ উপলক্ষে কুলউড়ায় শফিউল আলম নাদেলের বস্ত্র বিতরণ লিটিল হুপ ফাউন্ডেশন এর পক্ষ থেকে খাবার সামগ্রী বিতরণ ছাতক উপজেলা ও পৌর আ’লীগের সম্মেলন প্রস্তুতির আহবায়ক কমিটি গঠন সিলেট পরিবহন শ্রমিকদের মধ্যে ঈদ সামগ্রী বিতরণ করলেন নিসচার কেন্দ্রীয় নেতা মিশু সিলেট জেলা যুবলীগের উদ্যোগে ইফতার সামগ্রী বিতরণ অব্যাহত সিলেট মেরিন একাডেমির উদ্বোধন ও প্রাসঙ্গিক কথা পাইলটের দক্ষতায় চাকা খুলে পড়া এয়ার অ্যাম্বুলেন্সের জরুরি অবতরণ মৌলভীবাজারে জোড়া লাগানো যমজ শিশুর জন্ম গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে শেখ হাসিনার দেশে ফিরে আসার সেই ঐতিহাসিক দিন আজ সিলেটে করোনায় আরো ২জনের মৃত্যু, সনাক্ত ৭৪ শুকনো কাশি দূর করার ঘরোয়া উপায় রোজার মহিমায় মুগ্ধ হয়ে ভারতীয় তরুণীর ইসলাম গ্রহণ
cloudservicebd.com

মৌলভীবাজারে‘লাম্পি স্কিন’ভাইরাস আক্রান্ত হচ্ছে গরু :মারা গেছে ৫০টি

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি::মৌলভীবাজার গরুর শরীরে  হঠাৎ দেখা দিয়েছে লাম্পি স্কিনেএর কারনে পড়ে যাচ্ছে গরুর লোম।গরুর শরীরের তাপমাত্রাও বেশি। কিছু খেতেও চাচ্ছে না। মুখ এবং নাক দিয়ে লালা বের হচ্ছে। গ্রামের পশু ডাক্তারের মাধ্যমে বেশ কিছু দিন চিকিৎসা করার পরেও কমছে না। উল্টো গরুর শরীরের বিভিন্ন স্থানে পচন ধরেছে।

এক মাস পর চিকিৎসার জন্য জেলা পশু হাসপাতালে যোগাযোগ করে জানতে পারেন এই রোগের নাম ‘লাম্পি স্কিন’। রোগ শনাক্ত করতে দেরি হওয়ায় এখন গরু বাঁচিয়ে রাখাই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

আবদুল বাছিতের গরুর মতো জেলায় ৬ হাজার গরু ‘লাম্পি স্কিন’ নামক এই রোগে আক্রান্ত। মৌলভীবাজার জেলার বিভিন্ন এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গত বছর থেকে এই রোগে গরু আক্রান্ত হচ্ছে। এর আগে এই রোগ কৃষকের বা খামারিদের চোখে পড়েনি।

লাম্পি স্কিন নামক রোগে আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন এলাকায় কয়েকটি গরু মারা যাওয়া খবর পাওয়া গেছে।

এক বছর আগে থেকে এই রোগ এলেও গত প্রায় ৩-৪ মাস ধরে জেলার ৭টি উপজেলায় এ রোগ ছড়িয়েছে ব্যাপকভাবে। এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে ৬ হাজার ১১০টি গরু।

,মৌলভীবাজার জেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা,  ডাঃ মোঃ মাছুদার রহমান সরকার  বলেন,জেলায় সর্বশেষ পরিসংখ্যন অনুযায়ী গবাদি পশুর সংখ্যা ৪ লাখ ৮৫ হাজার। সরকারি হিসেব মতে আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৬ হাজার। আর মারা গেছে গত ১৫ দিনে ৫০টি গবাদিপশু।

প্রাণিসম্পদ দপ্তর বলছে জনবল ও বিভিন্ন ধরনের ঔষধ সংকটের কথা। লাম্পি স্কিন নামীয় ভাইরানের কোন স্থায়ী চিকিৎসা নেই। এ জন্য গবাদিপশুর আবাসস্থল পরিস্কার পরিচন্ন রাখা সহ লিফলেট বিতরণ করে ব্যাপক প্রচারণা চালানো হচ্ছে।

স্থানীয় কিষান-কিষানি ও ক্ষুদ্র খামারিরা মনে করেন লাম্পি স্কিন রোগে আক্রান্তের সংখ্যা যে হারে বৃদ্ধি পাচ্ছে। দ্রুত এর চিকিৎসা সহ প্রতিষেধক সংগ্রহ করে গবাদি পশুকে না দেয়া গেলে পশু সম্পদের বড় ধরনের ক্ষতির সম্মুখিন হতে হবে।

এখন পর্যন্ত মারা গেছে ৫০টি। তার মধ্যে কুলাউড়ায় ১০টি, শ্রীমঙ্গলে ৭টি এবং জুড়ীতে ৩টি।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


FB IMG 1620380947875 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD