বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১০:০৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
ভুয়া ভিডিও আপলোড-শেয়ার-মন্তব্যে সাবধান! বাংলাদেশে একই সাথে তিন ধর্মের উৎসব উদযাপিত চুনারুঘাটে ভারতীয় মদসহ আটক ১ সুনামগঞ্জে নৌকা থেকে পড়ে শিশুর মুত্যু ওয়াইফাই সংযোগ পাবে দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয় সিলেটে উন্নয়নের নামে অর্ধশত ছায়াবৃক্ষ কাটলো সিসিক লন্ডনে বাসে ছুরিকাঘাতে ৩ জন আহত সিলেট আসছেন চারদিনের সফরে সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি হোটেলে অসামাজিক কার্যকলাপ, নারী-পুরুষসহ গ্রেফতার ৯ শনিবার সিলেটের যেসব এলাকায় ১০ ঘন্টা থাকবে না বিদ্যুৎ সুপার টুয়েলভে উঠবে কী বাংলাদেশ? সমীকরণ যা বলছে ধর্মীয় ও পার্থিব জীবনে মহানবী (সা.)- এর শিক্ষা সমগ্র মানবজাতির জন্য অনুসরণীয় : প্রধানমন্ত্রী ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ ফেসবুকে ‘যতন সাহা হত্যাকাণ্ড’ নামে ছড়ানো ভিডিওটি মিথ্যা, গুজব
cloudservicebd.com

শিকল বেঁধে দেবর-ভাবিকে নির্যাতন, যুবক আটক

a40 - BD Sylhet News

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি :: হবিগঞ্জের চুনারুঘাটে অনৈতিক কাজের অভিযোগে পুত্রবধূ মারিয়া আক্তার (২৬) ও শাকিল মিয়া (২০) নামে এক তরুণকে শিকল দিয়ে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে।

নির্যাতিতরা উপজেলার কোনাগাঁও গ্রামের ভিংরাজ মিয়ার স্ত্রী মারিয়া আক্তার (২৬) একই এলাকার আবুল কালামের ছেলে শাকিল মিয়া (২০)।

নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে মারিয়ার শ্বশুর আব্দুস ছামাদ, স্বামী ভিংরাজ মিয়া, ভাসুর ধুপরাজ মিয়ার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গৃহবধূ মারিয়া চুনারুঘাট থানায় বুধবার রাতে একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়ের পর চুনারুঘাট থানাপুলিশ মারিয়ার স্বামী ভিংরাজ মিয়াকে আটক করে বৃহস্পতিবার (১৪ অক্টোবর) দুপুরে তাকে আদালতে প্রেরণ করেন।

এর আগে সোমবার (১১ অক্টোবর) দিবাগত রাত ১১টার দিকে উপজেলায় কোনাগাঁও গ্রামে এ নির্যাতনের ঘটনাটি ঘটেছে। গৃহবধূ ও তরুণের শিকলবন্ধি কয়েকটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে জেলাজুড়ে প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।

স্থানীয়রা জানান, অনৈতিক কাজের অভিযোগে আব্দুস ছামাদ পুত্রবধূ মারিয়া ও তাদের নিকটাত্মীয় শাকিলের হাত-পা শিকল দিয়ে বেঁধে রাখেন। সোমবার রাতে তাদেরকে মারধরও করা হয়। পরে মঙ্গলবার সকালে দুইজনকে শিকল দিয়ে বেঁধে টেনে-হিঁচরে গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। সেখান থেকে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা তাদেরকে পরিবারের জিম্মায় দেন। শাকিলের মা মমিনা খাতুন জানান, তার ছেলে নির্দোষ। তাকে মিথ্যা ঘটনায় জড়ানো হয়েছে। তিনি এর সুবিচার কামনা করেন।

এ বিষয়ে গাজীপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর জানান, ছামাদ মিয়া তার পুত্রবধু ও তরুণের বিরুদ্ধে অনৈতিক কাজের অভিযোগ তুলে আমার এখানে নিয়ে আসেন। মেয়েটি এক বাচ্চার মা। পরে দুইজনকে তাদের আত্মীয়ের জিম্মায় দিয়েছি। ছামাদ মিয়ার অভিযোগ সত্য কি না বিষয়টি সামাজিকভাবে বসে খতিয়ে দেখা হবে।

চুনারুঘাট থানার (ওসি) আলী আশরাফ জানান, এঘটনায় গৃহবধু মারিয়া বাদী হয়ে ভাসুর ধুপরাজ মিয়াকে প্রধান আসামী করে ৫ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করেন। অভিযুক্ত স্বামী ভিংরাজ মিয়াকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD