বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
স্বামীকে অচেতন করে পরকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে পালালেন স্ত্রী ভুয়া ভিডিও আপলোড-শেয়ার-মন্তব্যে সাবধান! বাংলাদেশে একই সাথে তিন ধর্মের উৎসব উদযাপিত চুনারুঘাটে ভারতীয় মদসহ আটক ১ সুনামগঞ্জে নৌকা থেকে পড়ে শিশুর মুত্যু ওয়াইফাই সংযোগ পাবে দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয় সিলেটে উন্নয়নের নামে অর্ধশত ছায়াবৃক্ষ কাটলো সিসিক লন্ডনে বাসে ছুরিকাঘাতে ৩ জন আহত সিলেট আসছেন চারদিনের সফরে সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি হোটেলে অসামাজিক কার্যকলাপ, নারী-পুরুষসহ গ্রেফতার ৯ শনিবার সিলেটের যেসব এলাকায় ১০ ঘন্টা থাকবে না বিদ্যুৎ সুপার টুয়েলভে উঠবে কী বাংলাদেশ? সমীকরণ যা বলছে ধর্মীয় ও পার্থিব জীবনে মহানবী (সা.)- এর শিক্ষা সমগ্র মানবজাতির জন্য অনুসরণীয় : প্রধানমন্ত্রী ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) আজ
cloudservicebd.com

ছাগল নিয়ে সেলফি, চোর ভেবে ২ শিক্ষার্থীকে গাছে বেঁধে নির্যাতন

Screenshot 20211001 223610 Facebook - BD Sylhet News

বিডি সিলেট ডেস্কঃ

দিনাজপুরের হাকিমপুরে ছাগল নিয়ে সেলফি তোলার সময় চোর বলে ধরে নিয়ে গাছে বেঁধে দুই শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। পরে নির্যাতনের অভিযোগে নাজমুল হোসেন নামে এক ইউপি সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার সকালে হাকিমপুর উপজেলার মোল্লাবাজার এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার ১১ ঘণ্টা পর নির্যাতনের অভিযোগে ইউপি সদস্য নাজমুল ইসলামকে আটক করছে পুলিশ। পরে দায়েরকৃত মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

শিক্ষার্থী আরিফ ও সৌরভ জানায়, শুক্রবার স্কুল বন্ধ থাকায় বাবার মোটরসাইকেল নিয়ে ঘুরতে যায় উপজেলার মোল্লাবাজার এলাকায়। তারা দুজনেই বাংলাহিলি পাইলট স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র। রাস্তার পাশে একটি সুন্দর ছাগলের বাচ্চা দেখতে পেয়ে তারা কোলে নিয়ে সেলফি তোলার জন্য প্রস্তুত হন। এ সময় কয়েকজন লোক তাদের চোর চোর বলে বলে ধাওয়া করে।

এতে ভয় পেয়ে তারা দ্রুত মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যাবার সময় তাদেরকে  রাস্তার উপর থেকে ধরে নিয়ে গিয়ে ছাগল চুরির অভিযোগ এনে ইউপি সদস্য নাজমুল হোসেনসহ কয়েকজন গাছের সঙ্গে বেঁধে এলোপাথাড়ি মারতে থাকে।

এদিকে সম্মানহানির কথা ভেবে ওই দুই ছাত্রের পরিবার বিষয়টি ধামাচাপা দিতে চাইলে শুক্রবার দুপুরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নির্যাতনের ভিডিওটি ভাইরাল হয়ে পড়ে। পরে বিষয়টি থানা পুলিশের নজরে এলে শুক্রবার সন্ধ্যায় হাকিমপুর মহিলা ডিগ্রী কলেজ এলাকা থেকে দুই শিক্ষার্থীকে নির্যাতনের অভিযোগে ইউপি সদস্য নাজমুল হোসেনকে আটক করেন।

হাকিমপুর থানা ওসি খায়রুল বাসার শামীম জানান, এ বিষয়ে নির্যাতনের শিকার স্কুল ছাত্র আরিফের বাবা উপজেলার মধ্যবাসুদেবপুর গ্রামের মনিরউদ্দীন হাকিমপুর থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাত আরও ১০/১৫ জনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। মুল আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে, ভিডিও দেখে শনাক্ত করে বাকিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। সূএ-যুগান্তর

 

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD