বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৪০ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের ১৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন মাহমুদউল্লাহর ইমামতিতে ক্রিকেটারদের নামাজ, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল সিলেটে কলেজছাত্র খুন : প্রধান আসামী সাদি কুষ্টিয়া থেকে গ্রেফতার সিলেটে জ্বালানি তেলের সংকটনিরসনে ৭ দিনের আল্টিমেটাম ‘দেশের সম্প্রীতি বিনষ্টের পরিকল্পনা হয়েছে লন্ডন থেকে’ মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী লড়াইয়ে ৫০ সেনা নিহত মণ্ডপ-মন্দিরে হামলায় খুব পরিচিত নাম এসেছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সিলেট বিভাগের ৭৭ ইউপিতে নৌকার প্রার্থী ঘোষণা শিক্ষিকাকে ধর্ষণ করে ভিডিও, প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার সামাজিক মাধ্যম থেকে সব উসকানিমূলক পোস্ট সরাতে হাইকোর্টে রিট কেমন হবে হাশরের ময়দান ওজন কমাতে কখন খাবেন তুলসী পাতা? ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী ও সেতুমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি, যুবক আটক সম্প্রীতির পরিবেশ নিশ্চিত করতে সরকার সম্ভাব্য সব কিছু করবে : ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মাংস বেশি খাওয়া নিয়ে বিয়েবাড়িতে সংঘর্ষ, নববধূকে তালাক!
cloudservicebd.com

যে নামাজে সব গুনাহ মাফ হয়ে যায়

FB IMG 1632459736404 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট ডেস্কঃ

মুমিন চেষ্টা করে গুনাহ থেকে বেঁচে থাকতে। কিন্তু কখনো শয়তানের ধোঁকায় পড়ে গুনাহ হয়ে যায়। তখন মুমিনের আফসোস ও আক্ষেপের শেষ থাকে না; কেন গুনাহে জড়ালাম, কেন গুনাহের পথে পা বাড়ালাম, কীভাবে পরিত্রাণ পাব এ গুনাহ থেকে।

কৃত গুনাহ তাকে কষ্টে নিপতিত করে। আর এটিই মুমিনের পরিচয়। এটিই তার ঈমানের প্রমাণ।

আবু উমামা (রা.) বলেন, এক ব্যক্তি রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামকে জিজ্ঞেস করল, ঈমান কী আল্লাহর রাসুল! (আমি কীভাবে বুঝব আমার মাঝে ঈমান আছে?)

তখন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বললেন- যখন তোমার নেক আমল তোমাকে আনন্দিত করবে এবং তোমার গুনাহ তোমাকে কষ্টে নিপতিত করবে (গুনাহের কারণে তুমি কষ্ট পেতে থাকবে)- তাহলে (বুঝবে) তুমি মুমিন। (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস ২২১৬৬; মুসতাদরাকে হাকেম, হাদিস ৩৩)

হাঁ, মুমিনের এ কষ্ট হল গুনাহ থেকে মুক্ত হওয়ার জন্য ব্যাকুলতার কষ্ট। এ কষ্ট থেকেই মুমিন আল্লাহর দুয়ারে ক্ষমার ভিখারী হয়ে ধরনা দেয়। উত্তমরূপে ওজু করে এবং নামাজে দাঁড়িয়ে যায়। ইসতিগফারের অশ্রুতে সিক্ত হয়।

আর তখনই রাহমানুর রাহীমের ক্ষমার দরিয়ায় মৌজ ওঠে। বান্দার সব গুনাহ ধুয়ে সাফ করে দেয়।

সিদ্দীকে আকবর আবু বকর (রা.) থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন- মুসলিম যখন কোনো গুনাহ করে ফেলে অতঃপর ওজু করে দুই রাকাত নামাজ আদায় করে এবং উক্ত পাপের জন্য আল্লাহর কাছে ক্ষমা চায় তখন আল্লাহ তাকে ক্ষমা করে দেন।

এরপর নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম এ দুটি আয়াত তিলাওয়াত করেন, যে ব্যক্তি কোনো মন্দ কাজ করে ফেলে বা নিজের প্রতি জুলুম করে বসে, তারপর আল্লাহর কাছে ক্ষমা চায়, সে অবশ্যই আল্লাহকে অতি ক্ষমাশীল, পরম দয়ালুই পাবে। (সুরা নিসা: ১১০)

এবং তারা সেই সকল লোক, যারা কখনও কোনো অশ্লীল কাজ করে ফেললে বা (অন্য কোনোভাবে) নিজেদের প্রতি জুলুম করলে সঙ্গে সঙ্গে আল্লাহকে স্মরণ করে এবং তার ফলশ্রুতিতে নিজেদের গুনাহের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করে…। (সুরা আলে ইমরান: ১৩৫)

তথ্যসূত্র- মুসনাদে আহমাদ, হাদিস ৪৭; সহীহ ইবনে হিব্বান, হাদিস ৬২৩; মুসনাদে আবু ইয়ালা, হাদিস ১৩

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD