মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:২৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
চলতি বছরও জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা হচ্ছে না : শিক্ষামন্ত্রী সিলেট জেলা আ.লীগ কর্তৃক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্মদিন পালিত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫ তম জন্মদিন পালন করেছে বিয়ানীবাজার উপজেলা আওয়ামী লীগ হৃদরোগে প্রাণ গেল ২১ কোটির সুলতানের! পা ভেঙে লোকালয়ে বিলুপ্ত বাজপাখি বানের পানি ঠেলে সন্তানকে নিয়ে পোলিও টিকাকেন্দ্রে বাবা! মুফতি কাজী ইব্রাহিম আটক ৬ দফা দাবিতে কোথায় যাবেন রাইড শেয়ারিং গ্রুপ সিলেট’র মানববন্ধন দেশে পৌঁছেছে ফাইজারের আরও ২৫ লাখ টিকা তেলের সংকটে অচল ব্রিটেন, সেনাবাহিনী ডাকার কথা ভাবছে সরকার সেই চালককে বাইক উপহারের ঘোষণা গোলাম রাব্বানীর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ অনলাইন গণমাধ্যমে সংবাদ লিখতে যে-বিষয়গুলো মনে রাখা দরকার সেই পাঠাও চালককে মোটরসাইকেল উপহার দেয়ার ঘোষণা বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার সাথে নিসচার মতবিনিময়
cloudservicebd.com

আ.লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠক বসছে: আসছে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত

Screenshot 20210902 211950 Google - BD Sylhet News

বিডি সিলেট ডেস্ক::

করোনার কারণে প্রায় এক বছর পর অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠক। আগামী বৃহস্পতি বা শুক্রবার (৯ অথবা ১০ সেপ্টেম্বর) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সীমিত পরিসরে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠকে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দলের সাংগঠনিক কর্মকাণ্ডে গতি ফেরাতে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত আসতে পারে। এছাড়া আলোচনা হবে ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা ও তা বাস্তবায়ন নিয়েও। করোনাভাইরাস পরিস্থিতি এবং দেশে চলমান রাজনীতি ও সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয়ও আলোচনায় আসবে।

আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে কথা বলে ও দলীয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া শনিবার দুপুরে বলেন, এ সপ্তাহে কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকের বিষয়ে একটা আলোচনা আছে। এটা ৯ বা ১০ তারিখের দিকে হতে পারে। তবে এখনো তারিখ চূড়ান্ত হয়নি। তারিখ চূড়ান্ত হলে আনুষ্ঠানিকভাবে নোটিশ দিয়ে সবাইকে তা জানিয়ে দেওয়া হবে। করোনা সংক্রমণ শুরুর পর প্রায় ৮ মাসের দীর্ঘ বিরতি দিয়ে গত বছরের ৩ অক্টোবর আওয়ামী লীগের সর্বশেষ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে আট সাংগঠনিক বিভাগের জন্য আটটি সাংগঠনিক টিম গঠন করা হয়। পাশাপাশি জেলা-উপজেলা কমিটি গঠনে ‘মাইম্যানদের’ বিষয়ে সতর্ক থাকাসহ বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা দিয়েছিলেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, এবারের সভাতেও করোনার কারণে জমে থাকা সাংগঠনিক কাজে গতি ফেরানোর বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিকনির্দেশনা দেবেন দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা। তার নির্দেশনা নিয়ে মাঠের কর্মসূচি জোরদার করবেন দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। এছাড়া তারা তাদের গত এক বছরের সাংগঠনিক ও মানবিক কাজের সার্বিক বিষয় রিপোর্ট আকারে তুলে ধরবেন।

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, আমাদের কার্যনির্বাহী কমিটির মিটিংয়ে সাধারণত সাংগঠনিক কর্মকাণ্ড নিয়ে আলোচনা হয়। আমাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী হবে, সেটা কীভাবে বাস্তবায়ন করা হবে, সেটা মূল আলোচনার বিষয় থাকবে। পাশাপাশি চলমান পরিস্থিতি ও রাজনৈতিক কর্মকাণ্ড নিয়েও আলোচনা হবে।

গত বছর আওয়ামী লীগের গঠিত বিভাগীয় টিম তাদের কার্যক্রম শুরু করলেও করোনার কারণে মাঝে তা আবারও অনেকটা স্থবির হয়ে পড়ে। সম্প্রতি করোনা সংক্রমণ কমে আসায় এবং জাতীয় শোকের মাস আগস্টের পর সেপ্টেম্বর থেকে আবারও দল গোছানোর কাজ শুরু করেছেন সাংগঠনিক দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে ওয়ার্ড থেকে জেলা পর্যন্ত মেয়াদোত্তীর্ণ কমিটির সম্মেলন ও পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের কাজ শেষ করার লক্ষ্যে কাজ করছেন তারা।

আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, করোনার কারণে দল গোছানোর কাজ অনেকটাই পিছিয়ে গেছে। সেই ঘাটতি পূরণে এখন দ্বিগুণ গতিতে কাজ করতে হবে। দলীয় সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনার পর তাদের দলের সাংগঠনিক কাজে আরও বেশি গতি ফিরবে। এছাড়া সাংগঠনিক টিমের নেতারা তাদের কাজ করতে গিয়ে কিছু কিছু বিষয়ে প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হয়েছেন। সেই বিষয়গুলো তুলে ধরে, দলীয় সভাপতির দিকনির্দেশনা চাইবেন। উপনির্বাচন ও স্থানীয় সরকার নির্বাচন নিয়েও গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা হবে আওয়ামী লীগের এই বৈঠকে।

এছাড়া বৈঠকে করোনাভাইরাস পরিস্থিতি, করোনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ সরকারের সাফল্য, করোনাকালীন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর বিষয়গুলোও উঠে আসবে। পাশাপাশি চলমান বন্যা পরিস্থিতিতে মূল দল আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের জন্য নতুন দিকনির্দেশনা আসতে পারে।

করোনাভাইরাসের কারণে আওয়ামী লীগের বিগত কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় ৩৩ জনকে ডাকা হয়েছিল। সেবার যারা উপস্থিত ছিলেন তাদের প্রত্যেকের করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ ফল আসার পরই সভায় যোগদানের অনুমতি পেয়েছিলেন। যারা করোনা আক্রান্ত ছিলেন, যাদের পরিবারের সদস্যরা করোনা আক্রান্ত তাদের বৈঠকে ডাকা হয়নি। এবারও একই পদ্ধতিতে সভা হবে বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে। তবে এবারের সভায় গতবার যারা আমন্ত্রণ পাননি তাদের প্রাধান্য দেওয়া হবে। সূএ-যুগান্তর

 

 

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD