মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
তেলের সংকটে অচল ব্রিটেন, সেনাবাহিনী ডাকার কথা ভাবছে সরকার সেই চালককে বাইক উপহারের ঘোষণা গোলাম রাব্বানীর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন আজ অনলাইন গণমাধ্যমে সংবাদ লিখতে যে-বিষয়গুলো মনে রাখা দরকার সেই পাঠাও চালককে মোটরসাইকেল উপহার দেয়ার ঘোষণা বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার সাথে নিসচার মতবিনিময় প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে সিলেট জেলা যুবলীগের মিলাদ মাহফিল মঙ্গলবার বড়লেখায় যুবশক্তি সমাজকল্যাণ পরিষদের সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ গণমাধ্যমের খবরেই জানতে পারি কোথায় কী হচ্ছে: হাইকোর্ট পররাষ্ট্রমন্ত্রীর নতুন বই ‘জাতির উদ্দেশে ভাষণ : শেখ হাসিনা বড়লেখায় পুকুরের পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু কোম্পানীগঞ্জে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় মদ উদ্ধার বড়লেখায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানের বৃক্ষরোপণ গত ২৪ ঘন্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত নতুন রোগী ভর্তি ২১৪ জন শেখ হাসিনা তার বাবার মতোই গণমানুষের নেতা : রাষ্ট্রপতি
cloudservicebd.com

সিলেট ছোটমণি নিবাসে শিশু হত্যা, তদন্তে কমিটি

Screenshot 20210814 191620 Facebook - BD Sylhet News

বিডি সিলেট:: সিলেটের ছোটমণি নিবাসে দায়িত্বরত আয়ার হাতে আলোচিত শিশু হত্যার ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন।

কমিশনের পরিচালক (অভিযোগ ও তদন্ত) (জেলা ও দায়রা জজ) মো. আশরাফুল আলমকে কমিটির প্রধান করা হয়েছে। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন- কমিশনের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ গাজী সালাহ উদ্দিন, সিলেট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেহেনা আক্তার।

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) সন্ধ্যায় সংশ্লিষ্টদের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে কমিটির প্রধান মো. আশরাফুল আলম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ইতোমধ্যে পুলিশ এ ঘটনায় মামলা দায়ের করেছে। ওই আয়াকে কোর্টে সোপর্দ করার পর সে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিও দিয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা আসছি এ ঘটনায় কর্তৃপক্ষের দায়িত্বে অবহেলা ছিল কিনা বা এ রকম আরও কিছু আছে কিনা খতিয়ে দেখতে। আমরা শিগগিরই আমাদের কমিশনের রিপোর্ট পেশ করব। আপনারা জানতে পারবেন।

উল্লেখ্য, ১২ আগস্ট গভীর রাতে তাকে সিলেটের সমাজসেবা অধিদফতরের ছোটমণি নিবাস থেকে আয়া সুলতানা ফেরদৌসি সিদ্দিকাকে গ্রেফতার করে এসএমপির কোতোয়ালি থানা পুলিশ। শনিবার রাতে সিলেটের মহানগর মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুর রহমানের আদালতে আয়া সুলতানা ফেরদৌসি সিদ্দিকা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে বলেন, উচ্চ রক্তচাপের কারণে ২২ জুলাই সকালে তিনি ওষুধ সেবন করেন। তাই তার মাথা ঠিক ছিল না। ওই দিন রাতে শিশু নাবিল কান্না করছিল। তার কান্নাকাটি সহ্য না হওয়ায় দুই মাস বয়সী নাবিলকে ছুড়ে মারেন। পরে বালিশচাপা দিলে তার মৃত্যু ঘটে।

এ ঘটনার পরপরই সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ছোটমণি নিবাসের উপ-তত্ত্বাবধায়ক রূপক দেব, অফিস সহকারী শফিকুল ও নাজিম উদ্দিনসহ কয়েকজন ঘটনাটি গোপন রাখতে বলেন।

হত্যাকাণ্ডের দুই মাস আগে সিলেটের গোয়াইনঘাট থেকে শিশুটিকে ছোটমণি নিবাসে পাঠানো হয়। পরে তার নাম রাখা হয় নাবিল। সে মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীর সন্তান। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছে।

সূত্র : যুগান্তর

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD