রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:২৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
অনিবন্ধিত ৫৯ আইপিটিভি বন্ধ ১০ কোটিতে বিক্রি হল ১ টাকার কয়েন! তৃণমূলের নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের প্রাণ, অতিথি পাখি নয় : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী খালেদা জিয়ার সাজা আরও ৬ মাস স্থগিত এসএমপি’র টিলাগড় পয়েন্টে পুলিশ বক্সের উদ্বোধন সিলেট জেলা আ’লীগ ও জেলা পরিষদের সদস্যদের বঙ্গবন্ধুর ম্যুারালে শ্রদ্ধা নিবেদন গোয়াইনঘাটে ১ কেজি গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার আজ থেকে ৪ ঘণ্টা বন্ধ সিএনজি স্টেশন বাদাঘাটে গ্রাম বাংলার ঐতিহ্যবাহী নৌকা বাইচ প্রতিযোগিতা সম্পন্ন সুনামগঞ্জে যাত্রীবাহী বাস নিযন্ত্রণ হারিয়ে আহত ৩০ সন্ধ্যায় আইপিএলে মুখোমুখি মুম্বাই-চেন্নাই ১৯৭০ সালে আজকের এই দিনে সিলেটে জন্মগ্রহণ করেছিলেন সালমান শাহ বিশ্বনাথে ১৫ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার প্রতিবন্ধী রাজনের করুণ জীবিকাযুদ্ধ যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে দেশে ফিরলেন সেনাবাহিনী প্রধান
cloudservicebd.com

সিলেট সোনামণি নিবাসে শিশু নাবিল হত্যা : দায় স্বীকার করেছেন আয়া

Screenshot 20210814 191620 Facebook - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ ডেস্কঃ সিলেট নগরীর বাগবাড়ি ছোটমনি নিবাসে মাত্র ২ মাসের শিশু নাবিলকে হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে আয়া সুলতানা ফেরদৌসী সিদ্দিকা। শনিবার সিলেট মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক সাইফুর রহমানের ফৌজদারী কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। পরে শুনানি শেষে আদালতের বিচারক আসামীকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এর আগে শুক্রবার রাতে কোতোয়ালী মডেল থানার এসআই মাহবুব আলম মন্ডল বাদী হয়ে মামলা দায়ের করে। শনিবার বিকেল ৪টার ওই মামলায় সুলতানাকে হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে পুলিশ আদালতে হাজির করে পুলিশ।

এ তথ্য নিশ্চিত করেন কোতোয়ালী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম আবু ফরহাদ। তিনি জানান, ছোটমনি নিবাসের আয়া সুলতানা বালিশচাপা দিয়ে শিশু নাবিলকে হত্যা করেছে বলে ১৬৪ ধারায় আদালতে জবানবন্দি দেন।

উল্লেখ্য গত ২২ জুলাই দিবাগত রাত ১১টার দিকে নগরীর বাগবাড়িস্থ ছোটমনি নিবাসে মাত্র ২ মাস ১১ দিন বয়সী শিশু নাবিল আহমদ কান্নাকাটি শুরু করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন সেসময় শিশুদের দেখভালের দায়িত্বে থাকা আয়া সুলতানা ফেরদৌসী সিদ্দিকা। এতে বিরক্ত হয়ে একপর্যায়ে নাবিলকে বিছানা থেকে তুলে সজোরে ছুড়ে ফেলেন সুলতানা। এসময় বিছানার স্টিলের রেলিংয়ে ধাক্কা খেয়ে মাটিতে পড়ে জ্ঞান হারায় শিশু নাবিল। পরে মুখের উপরে বালিশ চেপে ধরে তার মৃত্যু নিশ্চিত করেন পাষÐ আয়া সুলতানা। এরপর মৃত্যুর প্রমাণাদি লোপাটের চেষ্টা করেন তিনি। আর এজন্য তাকে সহযোগিতার করেন ছোটমনি নিবাসের কয়েকজন কর্মকর্তা-কর্মচারী।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD