শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
৯০ দিন পর মহাকাশ স্টেশন থেকে পৃথিবীতে ফিরলেন চীনা নভোচারীরা! পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রচেষ্টায় ২২ তারিখ থেকে রেড এলার্ট তুলবে ব্রিটেন জগদীশ চন্দ্র দাসের বড় ভাইয়ের মৃত্যুতে সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের শোক ডাঃ ফয়জুল ইসলামের মৃত্যুতে জেলা আওয়ামী লীগের শোক নিসচা জুড়ী শাখার কমিটি অনুমোদন : সভাপতি সাইফ, সম্পাদক জসিম ওসমানীনগরের আশ্রয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করলেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ছাতকের দক্ষিণ খুরমা ইউপি সদস্য শাহ এমরান আহমদকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা একজনকে বাঁচাতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে চারজনের মৃত্যু সরকারী ক্রয় ব্যবস্থা সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে সাংবাদিকদের ভূমিকা অপরিসীম-প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী কমলগঞ্জে প্রেম সংক্রান্ত জেরে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে বন্ধু আহত বড়লেখা ঐক্য পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নির্বাচিত হলেন; দেলোয়ার জুমা’র খুতবার সময় মসজিদে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, নিহত ১ ছাত্রদলের কমিটিতে সভাপতির প্রেমিকা, সম্পাদকের স্ত্রী সমুদ্রে নামতে পর্যটকদের মানতে হবে ১০ নির্দেশনা ইভ্যালির চেয়ারম্যান শামীমা ও সিইও রাসেল তিন দিনের রিমান্ডে
cloudservicebd.com

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর ভুয়া এপিএস শান্তা, মন্ত্রণালয়ের সতর্কবার্তা

FB IMG 1628776895563 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট নিউজ ডেস্কঃ শান্তা চৌধুরী নামে এক নারী নিজেকে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমদের এপিএস পরিচয় দিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। শান্তা চৌধুরী নামের কোনো নারীকে এপিএস হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়নি বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী ইমরান। বরং প্রতারক এই নারী থেকে সবাইকে সতর্ক থাকতে আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি ওই নারীর বিরুদ্ধে রমনা থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার মন্ত্রীর একান্ত সচিব আহমদ কবীর স্বাক্ষরিত এক সতর্কীকরণ প্রেস বিজ্ঞপ্তি গণমাধ্যমে পাঠানো হয়।

এতে বলা হয়, শান্তা চৌধুরী (https://www.facebook.com/ santa.chowdhury.75248) নামে একজন নারী ‘প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর চুক্তিভিত্তিক এপিএস হিসেবে নিয়োগ পেয়েছে’ মর্মে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গতকাল (বুধবার) একটি পোস্ট দিয়েছে। যা ভিত্তিহীন ও বানোয়াট একটি তথ্য। বিষয়টি আমাদের নজরে এসেছে। জনমনে বিভ্রান্তি নিরসনের লক্ষ্যে জানানো যাচ্ছে যে, শান্তা চৌধুরী নামের কাউকে মন্ত্রী চেনেন না এবং তার এপিএস হিসেবে নিয়োগও দেননি।

এতে আরও বলা হয়, প্রকৃত পক্ষে, মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামানকে ২০১৯ সালের গত ২৩ অক্টোবর মন্ত্রীর এপিএস হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন। তাই এ ব্যাপারে কাউকে বিভ্রান্ত না হওয়ার জন্য প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

ইতোমধ্যে শান্তা চৌধুরী কর্তৃক এপিএস হিসেবে ভুয়া পরিচয়দানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় থেকে রমনা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD