সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১০:৫৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
তিন বিষয়ে এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে কাজ করলে ধাক্কা দিয়ে বের করে দেয়া হবে- নানক সিসিকের সীমানা বর্ধনে প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে সিলেট মহানগর আ’লীগের অভিনন্দন ঈদের আগে দেশে ১৫৫ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছে প্রবাসীরা সিলেটের জৈন্তাপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় একজন নিহত সাবেক মেয়র কামরানের কবর জিয়ারত করলেন নানক দেশে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তে নতুন রেকর্ড সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা উপজেলাসহ দেশে আরো তিনটি নতুন উপজেলা হচ্ছে মৌলভীবাজারে তেল গ্যাস ফিলিং স্টেশনের ধর্মঘট প্রত্যাহার লন্ডনে টানা ভারী বর্ষণ ও বজ্রপাত: ব্যাপক জলাবদ্ধতা ব্রিটিশ বাংলাদেশি শাহনূর হত্যাকাণ্ড; ৬ জনের কারাদণ্ড করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য আরো ৪ কোটি ৬৬ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছে সরকার গোয়াইনঘাটে ২৪ বোতল অফিসার্স চয়েজ মদ ও ৪৪ বোতল ফেন্সিডিলসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী আটক সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে ভোট স্থগিত সিলেটে ফেসবুকে গুজব: গুজব ছড়ানোর অভিযোগে গ্রেপ্তার ৭
cloudservicebd.com

হেরে গেলেন আলোচিত সেই ‘বউ-শাশুড়ি’

20210302 185646 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট ডেস্ক:: বগুড়া পৌরসভা নির্বাচনে সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা আলোচিত সেই বউ-শাশুড়ি হেরে গেছেন। বিএনপি সমর্থিত শাহিনুর আকতার শানুর কাছে পরাজিত হয়েছেন খোদেজা বেগম (জবা ফুল) ও ছেলের স্ত্রী রেবেকা সুলতানা লিমা (চশমা)।

বগুড়া জেলা নির্বাচন অফিস সূত্র জানায়, গত রোববার অনুষ্ঠিত নির্বাচনে ৪ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডে শাহিনুর আকতার শানু (দ্বিতল বাস) চার হাজার ২৭৪ ভোট পেয়ে কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বর্তমান কাউন্সিলর খোদেজা বেগম পেয়েছেন তিন হাজার ৪৫৬ ভোট। তার ছেলের স্ত্রী রেবেকা সুলতানা লিমা পেয়েছেন, দুই হাজার ২০০ ভোট।

এর আগে খোদেজা বেগম বিএনপি দলীয় সমর্থন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে পরপর তিনবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। এবারের নির্বাচনে তার অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন ছেলের স্ত্রী লিমা।

ভোটের আগে খোদেজা মজা করে বলেছিলেন, জনগণ চশমা পরে কেন্দ্র গিয়ে জবা ফুলে ভোট দেবেন। এ ছাড়া তার ভোট কমবে না। আর রেবেকা সুলতানা লিমা বলতেন, শাশুড়ির কাছ থেকে পাওয়া অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে তিনি ভোট করবেন।

তবে নির্বাচনে পরাজয়ের পর খোদেজা ও পরিবারের সদস্যরা লিমাকে দায়ী করছেন। লিমা প্রার্থী না হলে ওই দুই হাজার ২০০ ভোট শাশুড়ির ঝুলিতে পড়ত। আর তিনি চতুর্থবারের মতো কাউন্সিলর হতেন। এ প্রসঙ্গে লিমা কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

এলাকাবাসী ও স্বজনরা জানান, বগুড়া শহরের ঠনঠনিয়া দক্ষিণপাড়ার মৃত আশরাফ আলীর স্ত্রী খোদেজা বেগম বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। তিনি বগুড়া পৌরসভার ৪ নম্বর সংরক্ষিত ওয়ার্ডে (১০, ১১ ও ১২ ওয়ার্ড) পরপর তিনবার কাউন্সিলর নির্বাচিত হন। তার বড় ছেলে আলমগীর হাসান। তিনি যুবদলের কর্মী ও বগুড়া জেলা ফল ব্যবসায়ী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক। মায়ের বিরুদ্ধে স্ত্রী রেবেকা সুলতানাকে তিনিই প্রার্থী করেন।

আলমগীর বলেন, ‘বয়স হওয়ায় মাকে এবার প্রার্থী না হওয়ার কথা বলেছিলেন। তিনি লিমাকে সমর্থন দিয়ে প্রার্থী করতে চেয়েছিলেন। কিন্তু ছোট ভাই জাহাঙ্গীর হোসেনের চাপে মা আবার প্রার্থী হন।’

এ বিষয়ে খোদেজা বেগমের ছোট ছেলে জাহাঙ্গীর হোসেন জানান, তার মায়ের জনপ্রিয়তা অটুট ছিল। কিন্তু ভাবি লিমা প্রার্থী হওয়ায় ভোটা কাটাকাটি হয়ে মা (খোদেজা) পরাজিত হলেন।

এলাকার ভোটার মোশাররফ হোসেন ও হোসনে আরা জানান, খোদেজা তাদের প্রিয় কাউন্সিলর ছিলেন। এবার তার ছেলের স্ত্রী প্রতিদ্বন্দ্বী হওয়ায় ভোট ভাগ হয়ে গেছে। ফলে দুজনকে পরাজিত হতে হয়।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০২১
Design & Developed BY Cloud Service BD