বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৫:৫৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম ::
এইচ টি ইমামের মৃত্যুতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শোক দেশে সাড়ে ৪৬ লাখ মানুষ করোনা টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন এইচ টি ইমাম আর নেই সিলেটের কানাইঘাটে ৩ সন্তানের জননী ধর্ষণের শিকার বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে: প্রধানমন্ত্রী  সালাউদ্দিন আলী আহমদের মৃত্যুতে সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের শোক কোম্পানীগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ঢাকা ম্যারাথন-২১ অনুষ্ঠিত দরগাহ কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন সিলেটের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সালাহ উদ্দিন আলী ঘুমানোর আগে স্মার্টফোন ব্যবহার ডেকে আনছে মহাবিপদ খেলাধূলার মাধ্যমে যুব সমাজকে সঠিক পথ দেখাতে হবে: আশফাক ঘন ঘন সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ৬দফা দাবিতে রশিদপুরে তিন উপজেলাবাসীর অবস্থান কর্মসূচি পালিত তিন বছর পর বড় পর্দায় ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালেন ইলিয়াস কাঞ্চন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সালাহ উদ্দিন আলী’র মৃত্যুতে সাবেক শিক্ষামন্ত্রীর শোক হজ পালনে টিকা গ্রহণ বাধ্যতামূলক আলোচনায় ভারতীয় আইপিএস অফিসার নভজোৎ সিমি
cloudservicebd.com

কোম্পানীগঞ্জে কিশোর হত্যার মূল আসামী বি-বাড়ীয়া থেকে গ্রেফতার

20210218 162711 - BD Sylhet News

বিডি সিলেট :; গত ৩১ জানুয়ারি কোম্পানীগঞ্জ থানাধীন নয়াগাঙ্গেরপাড় নামক স্থানের উপর দিয়ে প্রবাহিত ধলাই নদীর তীরে অজ্ঞাতনামা কিশোরের লাশ পাওয়া যায়। কোম্পানীগঞ্জ থানা পুলিশ লাশটি পেয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি দ্রুততম সময়ে লাশের পরিচয় শনাক্তের জন্য বিভিন্ন এলাকার মসজিদে মাইকিং করে। এরই ভিত্তিতে জানা যায় অজ্ঞাতনামা লাশটি কোম্পানীগঞ্জ থানাধীন পশ্চিম ইসলামপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের সদস্য আউওয়াল মিয়ার পুত্র হৃদয় মিয়া (১৫)। সে গত ২৭ জানুয়ারি হতে নিখোঁজ ছিল। লাশের ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের নিকট হস্তান্তরের পর সিলেট জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিনের পিপিএম এর সার্বিক দিক-নির্দেশনায় থানা পুলিশের সদস্যরা কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ কেএম নজরুলের নেতৃত্বে একাধিক দলে বিভক্ত হয়ে হত্যায় জড়িত আসামী গ্রেফতারে অভিযান পরিচালনা করেন। এক পর্যায়ে ভিকটিম কিশোর হৃদয়ের বন্ধু নয়ন ও রুহুল আমিনকে থানায় এন জিজ্ঞাসাবাদ করে জানা যায় তাদের অপর বন্ধু সফরের সাথে হৃদয় ৫/৬ দিন ঘোরাফেরা করে। ১ ফেব্রুয়ারি থানা পুলিশ ভিকটিম কিশোরের বন্ধু সাদ্দাম হোসেনের নাম-ঠিকানা সংগ্রহ করে তেলিখাল গ্রামে গিয়ে তাকে না পেয়ে তথ্য প্রযুক্তি সহায়তা নেয়। থানা পুলিশ গোপন সূত্রে জানতে পারে ৩১ জানুয়ারি  ভিকটিম হৃদয়ের লাশ উদ্ধারের পর হতে সন্দেহভাজন আসামী সাদ্দাম হোসেন গাঁ ঢাকা দেয়। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় জানা যায় সে ব্রাহ্মনবাড়ীয়া জেলার নবীনগর এলাকায় অবস্থান করছে। নবীনগরে তার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই(নি:) হিরক সিংহ গত বুধবার ১৭ ফেব্রুয়ারি নবীনগর থানার বড়াইল ইউনিয়নের অন্তর্গত বড়াইল গ্রাম হতে গ্রেফতার করে নিয়ে আসেন। পথিমধ্যে হত্যার বিষয়ে আসামীকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ১। মিজান আহমদ পিতা-আঃ ছত্তার সাং-নয়াগাঙ্গেরপাড় ২। সুমন মিয়া পিতা-বাছির মিয়া সাং-টুকেরগাঁও উভয় থানা-কোম্পানীগঞ্জ জেলা-সিলেটদ্বয়ের সংশ্লিষ্টতা পাওয়ায় থানা পুলিশ আটক করে।

এ বিষয়ে সিলেট জেলার পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন পিপিএম বলেন,অপরাধের সাথে জড়িত আসামীদের গ্রেফতারে সিলেট জেলা পুলিশ বদ্ধ পরিকর।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৭ - ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD