সোমবার, ২৩ নভেম্বর ২০২০, ১০:৪৪ অপরাহ্ন

শিরোনাম ::
কানাইঘাটে বাঘের থাবা ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলার পুরস্কার বিতরণ উপজেলা পরিষদ এসোসিয়েশন সিলেট বিভাগের সভাপতি আশফাক,সম্পাদক ফজলুর সিলেটে আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর বাই সাইকেল ও সেলাই মেশিন বিতরণ জাতীয় মহিলা সংস্থা সিলেটের চেয়ারম্যানের সাথে উপজেলার তথ্যসেবা কর্মকর্তার সৌজন্য সাক্ষাৎ সিলেট নগরীর কাজীটুলায় নববধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যার অভিযোগ,স্বামী পলাতক প্রয়ান দিবসকে সামনে রেখে শেষ হলো মাসব্যাপী ভবমেলা বাইডেন মঙ্গলবার নতুন মন্ত্রী পরিষদের নাম ঘোষণা করবেন পিযুষ কান্তি দের নামে চাঁদা দাবি, থানায় জিডি কাঁকন দে যুগ্ন জেলা ও দায়রা জজ পদে পদোন্নতিতে বিদায় সংবর্ধনা সিলেটের পুলিশ সুপারের সাথে ডেইলিবিডি নিউজ ও শ্রীহট্ট টকস্ পরিবারের সৌজন্য সাক্ষাৎ আজিজ আহমদ সেলিম স্মৃতি অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতা শুরু প্রিয় নানাভাইকে’ হারিয়ে আজহারীর হৃদয়ছোঁয়া স্ট্যাটাস সিলেটে তরুণ-তরুণীদের ফ্রি কম্পিউটার প্রশিক্ষণ দেবে অনটেক আইটি ২৫ পৌরসভায় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা,ভোট ২৮ ডিসেম্বর কোতোয়ালী মডেল থানার ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠিত
cloudservicebd.com

সিলেট তেমুখী পয়েন্টকে সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত চত্বর বাস্তবায়ন করা হোক

received 992616167909075 - BD Sylhet News

সুব্রত তালুকদার: সুরমা আর কালনী নদীর ঢেউয়ের তালে তালে মাঝির কণ্ঠে বাউল গান। জল-জ্যোৎস্নার শহর সুনামগঞ্জে হাছন রাজা, রাধারমন দত্ত, কামাল পাশা,আব্দুল করিম ও দুর্বিন শাহের লোক উৎসব, ছায়াবৃক্ষ হিজল-করচের হাওর টাঙ্গুয়া, বর্ষায় পূর্ণিমা রাতে জ্যোৎস্না ও পানির থৈথৈ জলরাশি, দিরাইয়ে উজান ধলে ঐতিহ্যবাহী মেলা, বর্ষায় ভাটি অঞ্চলের গ্রামে গ্রামে রাধারমণ দত্তের ধামাইল গানের আসর,আর হাওরের ঢেউয়ের সাথে যুদ্ধ করে বাঁচা সবকিছু আগের মতোই আছে। শুধু নেই ভাটির প্রাণপুরুষ,হাওরের রাজপুত্র, রাজনীতির বরপুত্র বাবু সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত।

সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের হাত দিয়ে সারা বাংলাদেশ তথা বৃহত্তর সিলেটে অনেক নেতাকর্মীর জন্ম হয়েছে। জানি না তারা আপনাকে স্মরণ করে কিনা?কিন্তু বাংলাদেশের হাজার হাজার,লক্ষ লক্ষ মানুষ আপনাকে স্মরণ করে। কারণ বাংলাদেশের মানুষ রাজনীতির মাঝে আপনাকে খুঁজে পায়। আর দিরাই-শাল্লার মানুষ আজও আপনার জন্য কাঁদে।

সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের মৃত্যুর পর ২০১৭ সালে সিলেট নগরীতে এক স্মরণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী জনাব আবুল মাল আবদুল মুহিত। সুনামগঞ্জ থেকে সিলেট নগরীর প্রবেশ মুখ তেমুখীকে ‘সুরঞ্জিত চত্বর’ নামকরণের ঘোষণা দিয়েছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। শোকসভার আয়োজক সংগঠন ‘দিরাই-শাল্লা সম্প্রীতি পরিষদ’ তেমুখীকে সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের নামে নতুন নামকরণের প্রস্তাব করলে তিনি এ ঘোষণা দেন।

শোকসভায় সাবেক অর্থমন্ত্রী বলেছিলেন, একজন জাতীয় নেতা মারা গেলে আমরা সিলেটে স্মরণসভা করি। কিন্তু সুরঞ্জিত সেন গুপ্ত মারা গেছেন প্রায় সাত মাস অতিবাহিত হয়েছে, আমরা তাঁর স্মরণে কোনো সভা করতে পারিনি। এটা আমাদের জন্য অত্যন্ত লজ্জার। এ জন্য আমরা সবাই দায়ী। সিলেট- সুনামগঞ্জ সড়কের তেমুখী পয়েন্টের গোল চত্বর প্রয়াত সুরঞ্জিত সেন গুপ্তের নামে হবে।’কিন্তু দুঃখজনক ঘোষণার চার বছর অতিক্রম হতে চলেছে, বাস্তবায়ন করা তো দূরের কথা আজ এটি নিয়ে কেউ কথাই বলেন না। আসল সমস্যা কোথায়?
নাকি কোথাও কোন ভূত আছে? খুঁজে বের করুন। কারন সিলেটের পবিত্র মাটিতে কোন ভূতের স্থান নেই।

সিলেটের মানুষ সুরঞ্জিত চত্বরটির বাস্তবায়ন চায়। যদি শেষ সমাধানের জন্য বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে যেতে হয়,যাবেন। কারণ শেখ হাসিনাই বাঙালির শেষ ঠিকানা।আসুন সিলেটবাসীর প্রাণের দাবি তেমুখী পয়েন্টকে অনতিবিলম্বে সুরঞ্জিত চত্বর হিসেবে বাস্তবায়ন করার দাবি জানাই।।

সুব্রত তালুকদার,
ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক,
নিউইয়র্ক মহানগর আওয়ামী লীগ।

শেয়ার করুন...
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  


বিডি সিলেট নিউজ মিডিয়া গ্রুপ কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। © ২০১৭ - ২০২০
Design & Developed BY Cloud Service BD